ইউরোপ

ঐক্যের বার্তা দিতে কিয়েভে ৩ দেশের রাষ্ট্রপ্রধান

কিয়েভ, ১৬ জুন – ফ্রান্স, জার্মানি এবং ইতালির রাষ্ট্রপ্রধানরা ইউক্রেনে পৌঁছেছেন। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাজধানী কিয়েভে পা রাখেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ, জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ স্কোলজ এবং ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি। এএফপির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

এএফপি প্রকাশিত একটি ছবিতে দেখা গেছে, ওই তিন রাষ্ট্রনেতা ট্রেন থেকে ইউক্রেনের রাজধানীর একটি প্ল্যাটফর্মে নেমেছেন।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁর কাছে এক সাংবাদিক জানতে চেয়েছিলেন, তিনি কেন ইউক্রেনে সফর করছেন? এর জবাবে তিনি বলেন, ইউরোপীয় ঐক্যের বার্তা দিতেই তার এই সফর।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে আকস্মিক হামলা চালায় রাশিয়া। দেশটিতে সংঘাত এখনও চলছে। যুদ্ধ শুরুর পর প্রথমবারের মতো এই তিন নেতা দেশটিতে সফর করছেন।

এই তিন রাষ্ট্রনেতা ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে সাক্ষাত করবেন। ইউরোপীয় ইউনিয়নে যোগদানের জন্য আনুষ্ঠানিক প্রার্থীর মর্যাদা দেওয়ার জন্য ক্রমাগত চাপ দিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেন। এর মধ্যেই তাদের এই সফর।

ম্যাক্রোঁ বলছেন, ইউক্রেনের প্রতি সমর্থন প্রকাশ করতেই তাদের এই সফর। শুধু এখন নয় ভবিষ্যতেও তারা ইউক্রেনকে সমর্থন দিয়ে যাবেন। বৃহস্পতিবার ভোরে পোল্যান্ড ছেড়ে যাওয়া একটি বিশেষ ট্রেনে এই তিনজন ইউক্রেনে পৌঁছান।

একদিন আগে রাশিয়া দাবি করেছে যে, তারা ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলে ন্যাটোর সরবারহ করা অস্ত্রের গুদাম ধ্বংস করে দিয়েছে। রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, তাদের সেনারা ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলীয় লভিভ শহরে একটি অস্ত্রের গুদামে হামলা চালিয়েছে।

ন্যাটোর সদস্য দেশগুলো কিয়েভকে যে অস্ত্র সহায়তা দিয়েছিল সেগুলো এবং প্রচুর পরিমাণে গোলাবারুদ ওই গুদামে সংরক্ষণ করা হয়েছিল। ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে ওই গুদাম ধ্বংস করা হয়েছে।

তবে মস্কোর এমন দাবির পক্ষে কিয়েভ বা ন্যাটোর কোনো সদস্য দেশের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয়নি। তাদের এই দাবি যাচাই করাও সম্ভব হয়নি।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/১৬ জুন ২০২২

Back to top button