কুমিল্লা

কুসিক নির্বাচনের আদ্যোপান্ত

কুমিল্লা, ১৫ জুন – ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) শুরু হয়েছে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক), উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদসহ মোট ১৮৯টি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। বুধবার সকাল ৮টায় শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত।

ভোট শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই চলছে ভোটগ্রহণ। সবগুলো কেন্দ্রে ভোট হচ্ছে ইলেট্রনিক ভোটিং মেশিনে। সোয়া দুই লাখের বেশি ভোটারের এ নগরে এবারই প্রথম সব কেন্দ্র ও ভোট কক্ষে থাকছে সিসি ক্যামেরা।

চলুন এক নজরে দেখে নেয়া যাক কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের আদ্যোপান্ত

ভোটগ্রহণের সময়: বুধবার (১৫ জুন) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা চলবে ভোটগ্রহণ।

ভোটার: ২,২৯,৯২০ জন

পুরুষ ভোটার: ১,১২,৮২৬ জন

নারী ভোটার: ১,১৭,০৯২ জন

তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া) ভোটার : ২ জন

ওয়ার্ড: ২৭টি সাধারণ, ৯টি সংরক্ষিত।

ভোটকেন্দ্রে: ১০৫টি কেন্দ্রের ৬৪০টি ভোট কক্ষে হবে ভোটগ্রহণ।

মেয়র প্রার্থী: ৫ জন

সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী: ১০৬ জন

সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী: ৩৬ জন

আইন শৃঙ্খলা রক্ষা

প্রতিকেন্দ্রে থাকবেন ১৫-১৬ জন নিরাপত্তা সদস্য। প্রতিটি সাধারণ ওয়ার্ডে থাকবে পুলিশ, এপিবিএন, ব্যাটালিয়ন আনসার সদস্য নিয়ে গঠিত মোবাইল ফোর্স। একইসাথে প্রতি তিন ওয়ার্ডে একটি করে মোট নয়টি স্ট্রাইকিং ফোর্স থাকবে। পাশাপাশি রিজার্ভ ফোর্স থাকবে দুটি। ভোটের মাঠে আরও নিয়োজিত থাকবে র‌্যাবের ২৭টি টিম ও বিজিবির ১২ প্লাটুন (প্রতি প্লাটুনে ২৫ জন) সদস্য।

এছাড়া ২৭ জন নির্বাহী হাকিম এবং ৯ জন বিচারিক হাকিম থাকবেন ভোটের মাঠে।

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের ইতিহাস

দুটি পৌরসভা নিয়ে ২০১১ সালের জুলাই মাসে কুমিল্লা সিটি করপোরেশন গঠিত হওয়ার পর দুটি নির্বাচন হয়েছে। দশ বছর আগে প্রথম নির্বাচনে নির্দলীয় প্রতীকে ভোট হলেও ২০১৭ সালে দলীয় প্রতীকে মেয়র নির্বাচন হয়।

দুই নির্বাচনেই ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীকে পরাজিত করে জয়ী হন বিএনপির প্রার্থী।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ১৫ জুন

Back to top button