কুমিল্লা

রাত পোহালেই নতুন ইসির প্রথম ‘পরীক্ষা’

কুমিল্লা, ১৪ জুন – রাত পোহালেই শুরু কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচন। নগর পিতা বেছে নিতে অপেক্ষায় কুমিল্লাবাসী। এদিকে এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে শুরু হবে নতুন ইসির পরীক্ষা। ইসি গঠনের পর থেকেই সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের আশ্বাস দিয়ে আসছে নির্বাচন কমিশন।

এবার দেখার পালা নতুন নির্বাচন কমিশন কতটুকু গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দিতে পারে।
আজ মঙ্গলবার কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)। পাশাপাশি প্রেরণ করা হয়েছে নির্বাচনী সকল সরঞ্জাম। সকাল থেকে কুমিল্লা জিলা স্কুলের শহীদ আবু জাহিদ মিলনায়তন থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ইভিএম ও নির্বাচনী সরঞ্জাম বিতরণ করা হয়।

১৮ দিন ধরে প্রার্থীদের নির্বাচনী প্রচারণা করেছেন প্রার্থীরা। এবার চিন্তা ভোটরদের। তারা হিসাব কষছেন কাকে নগর পিতা নির্বাচিত করবেন। সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে এক লাখ ১৭ হাজার ৯২ জন নারী ভোটারসহ দুই লাখ ২৯ হাজার ৯২০ জন ভোটার তাদের প্রতিনিধি নির্বাচনে এই হিসাব কষছেন।

তবে অনেকের হিসাবে বাগড়া দিতে পারে বৃষ্টি। আষাঢ়ের শুরুর দিনে নগরীতে বৃষ্টির সম্ভাবনা আছে বলে জানিয়েছেন কুমিল্লা আবহাওয়া অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইসমাইল ভূঁইয়া। তিনি বলেন, ‘ভোটের দিন হালকা বা মাঝারি ধরনের বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ’

এবার কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী ৩৬ জন এবং সাধারণ ওয়ার্ডে ১০৮ জন ভোটের লড়াইয়ে আছেন। সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে দুটি ওয়ার্ড ৫ ও ১০ নম্বর ওয়ার্ডে একক প্রার্থী থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুজন কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। ১০৫টি ভোটকেন্দ্রে বুথ রয়েছে ৬৪০টি।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার শুরু থেকেই মেয়র পদের তিন প্রধান প্রার্থী অভিযোগ-পাল্টা অভিযোগে আছেন আলোচনায়। শেষ সময়ে তারা তিনজনই নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করছেন। তবে এ জন্য ভোট সুষ্ঠু হতে হবে বলে মনে করছেন তারা। তিনজনই শেষ সময়ে গণমাধ্যমে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় পুরনো অভিযোগের সুরে নির্বাচন প্রভাবমুক্ত দাবি জানিয়েছেন।

কুসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মো. শাহেদুন্নবী চৌধুরী বলেন, ‘আমরা সুষ্ঠু ভোট করার জন্য বদ্ধপরিকর। পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্কুলার অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। প্রত্যেকটি কেন্দ্রেই পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ, আনসার, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রয়েছেন। জেলা প্রশাসক, পুলিশের কর্মকর্তারা সবাই সজাগ থাকবেন। এ ছাড়া বিভিন্ন জায়গায় চেক পয়েন্ট করা হয়েছে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকার ঘটনা না ঘটে। আমি আশাবাদী, একটি ভালো নির্বাচন হবে। ‘

কুমিল্লার পুলিশ সুপার মো. ফারুক আহমেদ জানান, সিটি নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর তিন হাজার ৬০৮ সদস্য নিয়োজিত থাকবেন। ৭৫টি চেকপোস্ট, ১০৫টি মোবাইল টিম, ১২ প্লাটুন বিজিবি, ৩০টি র‍্যাবের টিম, অর্ধশতাধিক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ৯ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ভোটের মাঠে থাকছেন। মঙ্গলবার সকালে কুমিল্লা স্টেডিয়ামে সকল আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা কমিটির সভায় আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি কিভাবে নির্বাচনকে সুষ্ঠু করা যায়। সে মোতাবেক এগিয়ে যাচ্ছি। সিটি নির্বাচনে সম্পৃক্ত সব কিছুই সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। ‘

মেয়র প্রার্থীদের কে কোথায় ভোট দেবেন :

সাবেক মেয়র মনিরুল হক সাক্কু আজ বুধবার ভোট দেবেন নগরীর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের হোচ্ছা মিয়া বিদ্যালয় কেন্দ্রে। নৌকার প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত ও ঘোড়া প্রতীকের নিজাম উদ্দিন কায়সার ভোট দেবেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজিয়েট হাই স্কুল কেন্দ্রে। একই কেন্দ্রে ভোট দেবেন কুমিল্লার আলোচিত সংসদ সদস্য আ ক ম বাহার উদ্দিন বাহার।

সূত্র: কালের কণ্ঠ
এম ইউ/১৪ জুন ২০২২

Back to top button