দক্ষিণ এশিয়া

মুসলিমদের নিশানা করে নিপীড়ন চালাচ্ছে ভারত সরকার

নয়াদিল্লি, ১৪ জুন – হজরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সাময়িক বহিষ্কৃত মুখপাত্র নূপুর শর্মার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলিমরা বিক্ষোভ করছেন। ভারতে বিক্ষোভকারীদের ওপর নির্যাতনেরও অভিযোগ উঠেছে। এবার বিজেপি নেতৃত্বাধীন নরেন্দ্র মোদি সরকার মুসলিমদের নিশানা করে নিপীড়ন চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

আজ মঙ্গলবার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তাদের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে মুসলিমদের ওপর নির্যাতন বন্ধের আহ্বান করে। বিবৃতিতে লেখা হয়েছে, বিক্ষোভ দমনে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ যেন অবিলম্বে অতিরিক্ত বলপ্রয়োগ থেকে বিরত হয়।বিক্ষোভ দমনের কড়া প্রক্রিয়ায় ভারতে একটি শিশু-সহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় অ্যামনেস্টি।

বিবৃতিতে অ্যামনেস্টি লিখেছে, শান্তিপূর্ণ উপায়ে যারা প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তাদের যে কায়দায় আইনশৃঙ্খলার ক্ষেত্রে বিপজ্জনক হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে তা গভীর উদ্বেগের বিষয়। একইসঙ্গে মুসলমানদের নিশানা করে সরকার ক্রমাগত যে পদক্ষেপ করছে তাও চিন্তার বিষয়।

ভারত সরকার মুসলমানদের নিশানা করছে দাবি করেছে অ্যামনেস্টি লিখেছে, ভারত সরকার প্রতিশোধমূলক ভাবে বেছে বেছে সেই সমস্ত মুসলমানদের ওপর নিপীড়ন করা হচ্ছে, যারা মুখ খোলার স্পর্ধা দেখাচ্ছেন বা শান্তিপূর্ণ উপায়ে তাদের ওপর হওয়া বিদ্বেষের প্রতিবাদ জানাচ্ছেন।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের বিবৃতির এখনও কোনো প্রতিক্রিয়া দেখায়নি ভারত সরকার।

উল্লেখ্য, ২০২০ সাল থেকে ভারতে কার্যক্রম বন্ধ করে দিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। মানবাধিকার রক্ষায় দৃষ্টান্তমূলক কাজের জন্য নোবেলজয়ী এ প্রতিষ্ঠানের আর্থিক কেলেংকারির অভিযোগে ভারতের ‘এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)’ সমস্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্ট এবং আর্থিক লেনদেন বন্ধ করে দেয়। তারা অ্যামনেস্টির গৃহীত বিদেশি অনুদানের স্বচ্ছতা নিয়েও প্রশ্ন তোলে। এরপরই ভারতে তাদের সমস্ত শাখা তথা কার্যক্রম বন্ধ করে দেয় অ্যামনেস্টি।

সূত্র: আমাদের সময়
এম ইউ/১৪ জুন ২০২২

Back to top button