এশিয়াদক্ষিণ এশিয়া

নিজেদের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা বাড়াবে চীন-পাকিস্তান

ইসলামাবাদ, ১৪ জুন – নিজেদের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা আরও বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে চীন-পাকিস্তান। সম্প্রতি বেইজিংয়ে দুই দেশের সামরিক বাহিনীর উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের পর এই ঘোষণা এসেছে।

সোমবার (১৩ জুন) হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।
গত ৯ থেকে ১২ জুন পাকিস্তান-চায়না জয়েন্ট মিলিটারি কো-অপারেশনের (পিসিজেএমসিসি) ব্যানারে পাক সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন চায়না’স সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের (সিএমসি) ভাইস-চেয়ারম্যান জেনারেল ঝ্যাং ইউক্সিয়ার।

বৈঠক শেষে সিএমসি এক বিবৃতিতে জানায়- পাকিস্তানের সঙ্গে সামরিক যোগাযোগ, সহযোগিতা, ব্যবহারিক ও প্রয়োজনীয় সামরিক সহায়তায় চীন বরাবরই আগ্রহী। চীন বিশ্বাস করে, দুই দেশের সামরিক বাহিনীর মধ্যে সহযোগিতা ও যোগাযোগ আরও বাড়ানো হলে এই অঞ্চলের অনেক জটিল সমস্যার সমাধান সম্ভব। কারণ উভয় দেশের সামরিক কৌশলগত সম্পর্ক পরীক্ষিত ও টেকসই।

পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া এক বিবৃতিতে বলেন, পাকিস্তান ও চীনের বন্ধুত্ব পাথরের মতো কঠিন। আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি যাই থাকুক না কেন, পাকিস্তান সবসময় দৃঢ়ভাবে চীনের পাশে দাঁড়াবে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, পাকিস্তান তার ভূখণ্ডে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান পরিচালনার জন্য প্রস্তুত। পাশাপাশি দুই দেশের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ এবং দ্বিপাক্ষিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ইস্যুতেও চীনের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে চায় দেশটি।

পাকিস্তান ও চীনের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের শুরু গত শতকের ষাটের দশক থেকে। গত ছয় দশকে উপমহাদেশ ও আঞ্চলিক রাজনীতিতে পরিবর্তন ঘটলেও দুই দেশের সম্পর্ক অপরিবর্তনীয় রয়েছে।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/১৪ জুন ২০২২

Back to top button