দক্ষিণ এশিয়া

ভারতে বিক্ষোভে ‘জড়িতদের’ বাড়ি গুঁড়িয়ে দেওয়া হলো বুলডোজারে

লক্ষ্ণৌ, ১৩ জুন – ভারতের উত্তর প্রদেশে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের প্রতিবাদে বিক্ষোভে ‘জড়িত’ থাকার অভিযোগ তুলে বেশ কয়েক জন মুসলিম ব্যক্তির বাড়ি গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন এ সব বাড়ি বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়।

তবে এ বাড়িগুলো অবৈধভাবে তৈরি হয়েছে বলে দাবি করেছে উত্তর প্রদেশ কর্তৃপক্ষের। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।
বিক্ষোভে জড়িত থাকার অভিযোগে উত্তর প্রদেশে এ পর্যন্ত ৩০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের গণমাধ্যমবিষয়ক উপদেষ্টা শালভ মণি ত্রিপাঠী একটি ছবি টুইট করেছেন। তাতে দেখা যায়, একটি বুলডোজার দিয়ে একটি বাড়ি ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। ছবিটি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, বিশৃঙ্খলকারীরা মনে রাখবেন, শুক্রবারের পরই আসে শনিবার।

এ ছাড়া যোগী আদিত্যনাথের গণমাধ্যমবিষয়ক উপদেষ্টা শালভ মণি ত্রিপাঠী সম্প্রতি আরও একটি ভিডিও শেয়ার করেছেন । যেখানে দেখা যায়, বিক্ষোভকারীদের থানায় নিয়ে বেধড়ক পেটাচ্ছে পুলিশ।

ওই ভিডিওটি পোস্ট করে টুইটারে শালভ মণি ত্রিপাঠী লেখেন, দাঙ্গাকারীদের ফিরতি উপহার দেওয়া হচ্ছে।

গত মে মাসে টেলিভিশনে এক বিতর্ক অনুষ্ঠানে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেন নূপুর শর্মা। তিনি তখন বিজেপির মুখপাত্র ছিলেন। নূপুর শর্মার ওই মন্তব্যে ক্ষুব্ধ হয় ভারতের মুসলিমরা। এ নিয়ে নিন্দা জানায় মুসলিম বিশ্বের এক ডজনের বেশি দেশ। এ ঘটনায় বিজেপির দিল্লি মিডিয়া ইউনিটের প্রধান নবীন কুমার জিন্দালকেও বহিষ্কার করা হয়েছে। নূপুর শর্মার আপত্তিকর মন্তব্যের একটি স্ক্রিনশট টুইট করার কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কার করে বিজেপি।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/১৩ জুন ২০২২

Back to top button