ইউরোপ

পশ্চিমারা শস্য রপ্তানির সমস্যা বাড়াচ্ছে

মস্কো, ১০ জুন – রাশিয়ার একজন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ ইউক্রেনের শস্য নিয়ে তৈরি হওয়া সমস্যা বৃদ্ধির জন্য পশ্চিমাদের দায়ী করেছেন। খবর সিসিটিভির।

ভিক্টর নাদিয়েন-রায়েভস্কি নামে ওই রুশ বিশেষজ্ঞ দাবি করেছেন, পশ্চিমারা শস্য সংকটের বিষয়টি নিয়ে বাড়িয়ে বলছে।

তিনি বলেন, আমাদের বিশেষজ্ঞদের তথ্য অনুযায়ী, শরৎকাল, অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর মাস, ইউক্রেনের গম রপ্তানির প্রধান মৌসুম। মানে ইউক্রেনের গমের বেশিরভাগ অংশ ইতিমধ্যেই রপ্তানি করা হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, বর্তমানে ইউক্রেনে তিন-থেকে চার মিলিয়ন টন গম আছে। যেগুলোর বেশিরভাগই বীজের জন্য সংরক্ষিত করা আছে।

তবে রুশ বিশেষজ্ঞ এমন কথা বললেও ইউক্রেনের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে বর্তমানে দেশটিতে প্রায় ১০ মিলিয়ন টন শস্য আটকে আছে। তাদের দাবি এগুলো যদি রপ্তানি না করা যায় তাহলে বিশ্ব খাদ্য সংকটে পড়বে।

ইউক্রেন শস্য রপ্তানি করতে না পারার জন্য দায়ী করছে রাশিয়াকে। তাদের দাবি রুশ নৌবাহিনী কৃষ্ণ সাগরে অবরোধ আরোপ করে রেখেছে।

তবে রাশিয়ার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যদি ইউক্রেন সমুদ্র থেকে মাইন সরিয়ে দেয় তাহলে শস্য রপ্তানিতে আর কোনো বাধা থাকবে না।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/১০ জুন ২০২২

Back to top button