পশ্চিমবঙ্গ

এবার নূপুরদের গ্রেপ্তারের দাবি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

কলকাতা, ০৯ জুন – বিজেপির বরখাস্ত হওয়া মুখপাত্র নূপুর শর্মা এবং বহিষ্কৃত মুখপাত্র নবীন জিন্দালের আপত্তিকর মন্তব্য নিয়ে এবার সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ওই ঘটনাকে তীব্র ধিক্কার জানিয়ে টুইটারে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি মমতা জনগণের বৃহত্তর স্বার্থে শান্তি ও শৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন জানিয়েছেন। বৃহস্পতিবার আনন্দবাজার অনলাইন এ খবর জানিয়েছে।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যম আয়োজিত বিতর্কসভায় মহানবী (সা.) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেন নূপুর। তারপর কার্যত একই কথা টুইট করেন গেরুয়া শিবিরের আরো এক মুখপাত্র নবীন জিন্দাল। তা নিয়ে হইচই শুরু হতেই নূপুরকে বরখাস্ত এবং নবীনকে বহিষ্কার করে বিজেপি। যদিও তাতে বিতর্ক ধামাচাপা পড়েনি। মধ্য-পূর্ব এশিয়ায় ভারতের পণ্য বয়কট শুরু হয়ে যায়। কাতারের মতো কয়েকটি দেশ সেসব দেশে ভারতীয় রাষ্ট্রদূতকে ডেকে আপত্তির কথা জানায়। সব মিলিয়ে আবর দুনিয়ায় ভারতের ভাবমূর্তি কালিমালিপ্ত হয়েছে বলে মনে করছেন অনেকেই। এবার সেই প্রেক্ষিতে ঘটনার নিন্দা করলেন মমতা।

পর পর তিনটি টুইটে তিনি লিখেছেন, ‘বিজেপির ধ্বংসাত্মক কয়েকজন নেতার করা জঘন্য এবং নৃশংস ঘৃণাভাষণকে ধিক্কার। এতে শুধু যে হিংসা ছড়ায় তা-ই নয়, আমাদের দেশের বৈচিত্রময় সংস্কৃতিও ক্ষুণ্ণ হয়। আমি অভিযুক্ত বিজেপি নেতাদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার চাই।’ মুখ্যমন্ত্রী টুইটে জনগণের বৃহত্তর স্বার্থে সব ধর্ম, বর্ণ, জাতির মানুষকে শান্তি বজায় রাখারও আবেদন জানিয়েছেন। নূপুর, নবীনের মন্তব্য ও টুইট নিয়ে বেজায় বেকায়দায় পড়েছে শাসকদল বিজেপি। যদিও এখন পর্যন্ত এ প্রসঙ্গে একটি শব্দও উচ্চারণ করেননি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এবার সেই মোদি সরকারের উপরই চাপ বাড়িয়ে দোষীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারির দাবি তুলেছেন মমতা।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ০৯ জুন

Back to top button