টলিউড

স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিনেতা কাঞ্চনের মামলা

কলকাতা, ০৮ জুন – আদালত অবমাননার অভিযোগ এনে স্ত্রী পিংকি ব্যানার্জির বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছেন টলিউড অভিনেতা-বিধায়ক কাঞ্চন মল্লিক। বুধবার (৮ জুন) বিচারপতি বিশ্বজিৎ বসুর একক বেঞ্চে এ মামলার শুনানি হয়। আগামী সোমবার আবারো এ মামলার শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

কাঞ্চন-পিংকির একমাত্র ছেলের বয়স ৯ বছর। পিংকির কাছেই থাকে তাদের সন্তান। কাঞ্চন ছেলের সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। এর আগে আলিপুর আদালত নির্দেশ দিয়েছিলেন, মধ্য কলকাতায় কোনো এক নিরপেক্ষ স্থানে ছেলের সঙ্গে বাবা কাঞ্চনের দেখা হবে। আর সেখানে ছেলেকে নিয়ে যাবেন পিংকি। কিন্তু ছেলেকে নিয়ে নিরপেক্ষ কোথাও না যাওয়ায় আদালতের দ্বারস্থ হন কাঞ্চন।

এই মামলার বিষয়ে কাঞ্চন মল্লিক বলেন—‘অনেক দিন ধরেই বিচ্ছেদের মামলা চলছে। সচরাচর আদালতে যাই না; আজও যাইনি। আমার উকিল আমার হয়ে সব কথা বলেছেন। ছেলেকে দেখতে পাই না। তাই বাবা হিসেবে কর্তব্যপালনে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি।’

পিংকির বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। তার ভাষায়—‘ছেলেকে কাঞ্চনের সঙ্গে দেখা করতে দিচ্ছি না, বিষয়টা একেবারেই তেমন নয়। এর বেশি এই মুহূর্তে কিছু বলতে পারব না। যা বলার দু’পক্ষের উকিল বলবেন।’

‘কৃষ্ণকলি’খ্যাত টেলিভিশন অভিনেত্রী শ্রীময়ী চট্টরাজের সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়েছেন কাঞ্চন মল্লিক—এমন অভিযোগ করেন পিংকি ব্যানার্জি। এ নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি, পরে তা গড়ায় মামলা পর্যন্ত। তবে শ্রীময়ীর সঙ্গে কাজের বাইরে অন‌্য কোনো সম্পর্ক নেই বলে দাবি করেছেন কাঞ্চন।

৯ বছর আগে বিয়ে করেন পিংকি-কাঞ্চন। কিন্তু পিংকি মাত্র ২০ দিন সংসার করেছেন বলে অভিযোগ করেন কাঞ্চন। কারণ বিয়ের পর থেকেই বাবার বাড়িতে থাকেন পিংকি। লকডাউনের সময়েও একসঙ্গে ছিলেন না তারা।

এম এস, ০৮ জুন

Back to top button