ইউরোপ

২১০ ইউক্রেনীয় যোদ্ধার মরদেহ ফেরত দিল রাশিয়া

কিয়েভ, ০৮ জুন – রাশিয়া কিইভকে ২১০ ইউক্রেইনীয় যোদ্ধার মৃতদেহ ফেরত দিয়েছে বলে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স। প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার এক ঘোষণায় ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী এ খবর জানিয়েছে। মৃতদেহর অধিকাংশই মারিউপোলের বিশাল ইস্পাত কারখানার প্রতিরোধ যুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

রাশিয়ার বাহিনীগুলো ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় বন্দর শহরটি নিয়ন্ত্রণে নেয়া চেষ্টাকালে ইউক্রেনীয় যোদ্ধারা আজভস্তাইল ইস্পাত কারখানায় অবস্থান নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। প্রায় তিন মাস ধরে প্রতিরোধ চালিয়ে যাওয়ার পর রুশ বাহিনীর অবরোধের মধ্যে খাবার, ওষুধ ও গোলাগুলি ফুরিয়ে যাওয়ায় কারখানাটিতে অবস্থান নেয়া প্রায় আড়াই হাজার ইউক্রেনীয় যোদ্ধা আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হয়। আত্মসমর্পণের পর রাশিয়া তাদের নিজেদের হেফাজতে নিয়ে যায়।

টুইটারে ইউক্রেইনের প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা অধিদপ্তর জানায়, মারিউপোলের নিহত প্রতিরোধকারীদের মৃতদেহ ফেরত দেয়া প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত আমাদের ২১০ জন সেনার (মৃতদেহ) ফেরত দেয়া হয়েছে- এদের অধিকাংশই আজভস্তাইলের বীর রক্ষক।

আত্মসমর্পণ করা আজভস্তাইলের প্রতিরোধকারীদের ভাগ্যে কী ঘটেছে সে বিষয়ে খুব অল্প তথ্য পাওয়া গেছে। বন্দি বিনিময়ের মাধ্যমে তাদের সবাইকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে কিইভ, কিন্তু রাশিয়ার বেশ কয়েকজন আইনপ্রণেতা কিছু সেনাকে বিচারের কাঠগারায় তুলতে চান।

এদিকে আটক ইউক্রেইনীয় প্রতিরোধকারীদের সবাইকে ফিরিয়ে আনতে কাজ চলছে বলেছে গোয়েন্দা অধিদপ্তর।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ০৮ জুন

Back to top button