ইউরোপ

রাশিয়ার ৩১ হাজারের বেশি সেনা নিহত, দাবি ইউক্রেনের

কিয়েভ, ০৬ জুন – ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, রাশিয়া এখন পর্যন্ত ৩১ হাজার ২৫০ জন সেনা সদস্য হারিয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা চালায় রাশিয়া। তারপর থেকে এখন পর্যন্ত ৩১ হাজারের বেশি রুশ সেনা নিহত হয়েছে বলে ইউক্রেনের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে। খবর আল জাজিরার।

ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী আরও জানিয়েছে যে, এই যুদ্ধে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩৮৬টি ট্যাঙ্ক, ৩ হাজার ৪শ সামরিক যান, ৬৯০ আর্টিলারি সিস্টেম, ২০৯টি একাধিক ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা, ৫৫১টি ক্ষেপণাস্ত্র, ৯৬টি বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, ২১১টি যুদ্ধবিমান, ১৭৬টি হেলিকপ্টার এবং ১৩টি জাহাজ ও বেশ কিছু নৌকা হারিয়েছে মস্কো।

এদিকে গত ৪ জুন ইউক্রেন দাবি করে যে, লুহানস্ক অঞ্চলের যে শহরটি ঘিরে গত কয়েকদিন ধরে তীব্র লড়াই চলছে, সেখানে রুশ বাহিনীর কাছ থেকে তারা কিছু এলাকা পুনর্দখল করেছে।

ইউক্রেন যাতে সেখানে বাড়তি সৈন্য এবং রসদ পাঠাতে না পারে সেজন্যে রুশ বাহিনী সেভেরোদোনেৎস্ক শহরের পশ্চিমে একটি নদীর ওপর সেতুগুলো ধ্বংস করে দিচ্ছে বলেও জানিয়েছেন একজন ইউক্রেনীয় কর্মকর্তা।

অপরদিকে রাশিয়া দাবি করছে, তারা অস্ত্র এবং গোলাবারুদসহ একটি একটি ইউক্রেনীয় বিমান ভূপাতিত করেছে।

কয়েকদিন ধরেই সেভেরোদোনেৎস্কের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে তীব্র লড়াই চলছে। শহরটির প্রায় ৭০ শতাংশই রুশরা দখল করে নিয়েছে। ইউক্রেনীয় সৈন্যরা সেখান থেকে পিছু হটতে পারে, এমন ইঙ্গিতও দেওয়া হচ্ছিল।

কিন্তু ইউক্রেনের লুহানস্ক প্রদেশের গভর্নর এখন দাবি করছেন, রুশদের বিরুদ্ধে লড়াই করে তারা এখন শহরটির এক পঞ্চমাংশ পুনর্দখল করেছেন।

গভর্নর সেরহি হাইদাই বলছেন, সেখানে যাতে আরও ইউক্রেনীয় সৈন্য এবং রসদ পাঠানো না যায়, সেজন্যে রুশরা সেভেরোদোনেৎস্কের পশ্চিমে একটি নদীর ওপর ব্রিজগুলো উড়িয়ে দিচ্ছে। তিনি বলেন, ইউক্রেন সেখানে যে প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে, তাতে রুশরা ভীত।

এর মধ্যে রাশিয়া দাবি করছে, তারা ইউক্রেনের একটি সামরিক বিমানে আক্রমণ চালিয়ে সেটি ধ্বংস করেছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, ওই বিমানে অস্ত্র ও গোলাবারুদ বহন করা হচ্ছিল, ওডেসা বন্দরের কাছে এটি ভূপাতিত করা হয়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ইগর কোনাশেনকভ বলেন, তারা ইউক্রেনীয়দের বেশ কিছু লক্ষ্যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/০৬ জুন ২০২২

Back to top button