ফুটবল

মেসির গোল উৎসব : এস্তোনিয়াকে উড়িয়ে দিলো আর্জেন্টিনা

রাতটা যেন ছিলো শুধুই মেসির। পুরো ম্যাচজুড়ে একাই করলেন পাঁচ গোল, দলই জিতলো ৫-০ গোলেই। ফিফার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচটি আর্জেন্টিনা বনাম এস্তোনিয়া না হয়ে হলো মেসি বনাম এস্তোনিয়া।

ম্যাচের বয়স যখন মাত্র ৮ মিনিট, তখন থেকেই মেসির এই গোল উৎসবের শুরু। এস্তোনিয়ার গোলরক্ষকের ফাউলের জেরে পাওয়া পেনাল্টি থেকে গোল করতে একটুও ভুল করেননি মেসি। ফিফা র‍্যাংকিংয়ের ১১০ নাম্বার দলের বিপক্ষে একের পর এক আক্রমণ করে গেছে আর্জেন্টিনা। তবেঁ গোলের দেখা আর পাচ্ছিলো না। প্রথমার্ধ্বের একবারে শেষ মিনিটে এসে আবারও মেসি। পাপু গোমেজের বাড়ানো বল অনায়াসেই জালে জড়ান মেসি। মেসির এই দুই গোলেই ২-০ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় আলবিসেলেস্তারা।

বিরতি থেকে ফিরে মেসি যেন আরও ভয়ংকর। দ্বিতীয়ার্ধ্বের মাত্র দ্বিতীয় মিনিটেই নিজের হ্যাট্রিক পূর্ণ করেন মেসি। রদ্রিগো ডি পলের ক্রস থেকে বল পেয়ে আলতো টোকায় এস্তোনিয়ার গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন জাতীয় দলের জার্সিতে নিজের ৮ম হ্যাটট্রিক তুলে নেনে সাত বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই তারকা।

শুধু হ্যাটট্রিকেই থামেনি মেসির গোল উৎসব, সুপার হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন ৭১ মিনিটে। এস্তোনিয়ার ডিফেন্ডার ও গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে তুলে নেন নিজের চার নম্বর গোল। বাকি ছিলো আরও কিছুও। এই গোলের মিনিট পাঁচেক না যেতেই আবারও স্কোরকার্ডে নাম লেকাহ মেসি। এস্তোনিয়ার বক্সে পাওলো দিবালা ও হুলিয়ান আলভারেসের টানা দুই শট বাধা পেলে বল পান মেসি। তার শট আর আটকাতে পারেননি এস্তোনিয়ার গোলরক্ষক।।

মেসির এই পাঁচ গোলেই এস্তোনিয়াকে ৫-০ গোলে হারিয়ে নিজেদের অপরাজিত থাকার রেকর্ডটাকে ৩৩ ম্যাচে নিয়ে গেলো লিওনেল স্ক্যালোনির দল। মেসিও করলেন এক রেকর্ড। এই প্রথম কোনো ফুটবলার হিসেবে ক্লাব এবং জাতীয় দলের হয়ে এক ম্যাচে ৫ গোল করলেন মেসি। এর আগে ২০১২ সালে বার্সেলোনার হয়ে বেয়ার লেভারকুসেনের বিপক্ষে এক ম্যাচে ৫ গোল করেছিলেন মেসি।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ০৬ জুন

Back to top button