জানা-অজানা

৭৮০ জনের মাংকিপক্স শনাক্ত

বিশ্বজুড়ে মাংকিপক্স শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা বাড়ছেই। রবিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) জানিয়েছে, আফ্রিকার বাইরে ২৭টি দেশে এ পর্যন্ত ৭৮০ জনের এই ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, মাত্র এক সপ্তাহ আগেও শনাক্তের সংখ্যা ছিল ২৫৭। অর্থাৎ, এই সময়ের মধ্যে শনাক্তের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় তিন গুণ। ভাইরাসটির আরও বিস্তার ঘটার আশঙ্কার কথা জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

নতুন করে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের বেশিরভাগই ইউরোপ ও উত্তর আমেরিকার দেশগুলোর বাসিন্দা। কানাডা জানিয়েছে, দেশটিতে ৭৭ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। বেশিরভাগই কুইবেক প্রদেশের। রোগ প্রতিরোধে ইতোমধ্যে ভ্যাকসিন সরবরাহ করে হয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা (সিডিসি) বলছে, যুক্তরাষ্ট্রে শনাক্তের হার বাড়তে থাকায় ব্যাপকভিত্তিক পরীক্ষা শুরু করেছে। সিডিসি’র প্রতিবেদনে জানা গেছে, ‘শনাক্ত হওয়া প্রথম ১৭ জনের মধ্যে ১৬ জনই সমকামী। আর ১৪ জনের ভ্রমণ ইতিহাস রয়েছে। আক্রান্তদের অধিকাংশই সুস্থ হয়ে উঠেছেন অথবা সুস্থ হওয়ার পথে। তাদের শারীরিক অবস্থা গুরুতর নয়।’

মাংকিপক্স বিস্তারের পেছনে ইউরোপে সমকামী উৎসবের সম্পর্ক থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। যদিও এই রোগটিকে যৌনবাহিত রোগ বলা হচ্ছে না।

হোয়াইট হাউজের গ্লোবাল হেলথ সিকিউরিটি ও বায়োডিফেন্স ডিভিশনের জ্যেষ্ঠ পরিচালক রাজ পাঞ্জাবি বলেছেন, প্রাথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি রাজ্যে ১২শ ভ্যাকসিন বিতরণ করা হয়েছে। বিশেষ করে যে জায়গাগুলোতে শনাক্ত চিহ্নিত হয়েছে।

ইউরোপের দেশ স্পেন, পর্তুগাল, জার্মানি, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস, ইতালি, সুইডেন, অস্ট্রিয়া ও সুইজারল্যান্ডেও মাংকিপক্স শনাক্ত হয়েছে।

এম ইউ/০৫ জুন ২০২২

Back to top button