ইউরোপ

চার্চে অগ্নিসংযোগের জন্য ইউক্রেনকে দোষারোপ রাশিয়ার

মস্কো, ০৪ জুন – ডোনেস্ক অঞ্চলের একটি চার্চে অগ্নিকাণ্ডের জন্য ইউক্রেনকে দায়ী করেছে রাশিয়া। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, ইউক্রেনের জাতীয়তাবাদীরা সোয়াটোহিরস্ক লাভরা চার্চে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

টেলিগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, ইউক্রেনের ৭৯তম এয়ারবোর্ন অ্যাসল্ট ব্রিগেডের ইউনিটগুলো সিয়াটোহিরস্ক থেকে পিছু হটার প্রাক্কালে ‘ইউক্রেনীয় জাতীয়তাবাদীরা’ কাঠের চার্চটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়।

স্থানীয় বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে পোস্টে দাবি করা হয়, ইউক্রেনের সাঁজোয়া যানে থাকা মেশিনগান থেকে চার্চটির কাঠের দেয়ালে হামলা চালানো হয়েছে।

রাশিয়ার এমন দাবির ব্যাপারে তাৎক্ষণিকভাবে কিয়েভের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

এদিকে ডনবাসের লুহানস্ক অঞ্চলের যে শহরটি ঘিরে গত কয়েকদিন ধরে তীব্র লড়াই চলছে, সেখানে রুশ বাহিনীর কাছ থেকে কিছু এলাকা পুনর্দখলের দাবি করেছে ইউক্রেন। লুহানস্কের গভর্নর সের্হি হাইদাই এক টেলিভিশনে সাক্ষাৎকারে বলেছেন, সেভেরোডোনেস্কের হারানো ২০ শতাংশ জায়গা আবারও পুনরুদ্ধার করেছে ইউক্রেনীয় যোদ্ধারা। রুশ হামলায় সেখানকার বেসামরিক নাগরিকরা প্রাণ হারাচ্ছেন বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি। তবে পুনর্দখল করা এলাকাটিতে কিয়েভ যেন বাড়তি সেনা ও রশদ পাঠাতে না পারে, সেজন্য রুশ বাহিনী সেভেরোদোনেৎস্ক শহরের পশ্চিমে একটি নদীর ওপর সেতুগুলো ধ্বংস করে দিচ্ছে দাবি করেছেন ইউক্রেনের একজন কর্মকর্তা।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন
এম ইউ/০৪ জুন ২০২২

Back to top button