দক্ষিণ এশিয়া

অর্থপাচার মামলায় গ্রেপ্তার হতে পারেন শেহবাজ শরিফ

ইসলামাবাদ, ০৪ জুন – গ্রেপ্তার হতে পারেন পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। একইসঙ্গে তার বড় ছেলে পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী হামজা শাহবাজও গ্রেপ্তার হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন। বহুল আলোচিত চিনি দুর্নীতি ও অর্থ পাচার মামলায় তাদের দু’জনকে গ্রেপ্তার করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ফেডারেল ইনভেস্টিগেটিং এজেন্সির (এফআইএ) কর্মকর্তারা।

শনিবার মামলার শুনানিতে বিচারক ইজাজ হাসান আওয়ানের কাছে এ আবেদন করেন তারা। খবর ডনের

এদিন আদালত শাহবাজ ও হামজার জামিনের মেয়াদ বাড়ালেও মামলার অন্যতম আসামি শাহবাজের ছোট ছেলে সুলেমান শাহবাজসহ অপর দুই আসামি তারিক নাকভি ও মালিক মাকসুদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন।
মামলার অভিযোগে বলা আছে, পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে আখ ক্রয়, চিনি উৎপাদন ও বিপণন প্রক্রিয়ায় অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে হাজার কোটি রুপি লোপাট করেছেন শাহবাজ শরিফ, তার দুই ছেলে ও এজাহারভুক্ত অন্য আসামিরা। সর্বমোট ১ হাজার ৬০০ কোটি পাকিস্তানি রুপি বিদেশে পাচারের অভিযোগ রয়েছে পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে ২০২০ সালে লাহোরের বিশেষ আদালতে মামলা করে এফআইএ।

শাহবাজ শরিফ অবশ্য বরাবরই তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে পাকিস্তানে রাজনীতি ও নির্বাচন করার অধিকার হারাবেন তিনি।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৪ জুন ২০২২

Back to top button