ক্রিকেট

নেতৃত্ব দিতে হলে নিয়মিত খেলতেই হবে, সাকিবকে সিডন্সের বার্তা

ঢাকা, ০৪ জুন – সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বের শুরুটা জেমি সিডন্সের অধীনেই। বলতে গেলে হাতেখড়িও। নেতা সাকিব কিংবা ক্রিকেটার সাকিব; সিডন্সের চেয়ে বেশি জানার কথা নয় কারও। সেই সিডন্স এখন বাংলাদেশের ডেরায়, হাত বদলে সাকিবের কাঁধে এলো টেস্টের নেতৃত্ব। বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে সিডন্স ভাসালেন প্রশংসায়, সঙ্গে বার্তা দিলেন— নেতৃত্ব দিতে হলে নিয়মিত খেলতে হবে।

টেস্ট ক্রিকেটে সাকিব যে অনিয়মিত সেটা সিডন্সের জানা আছে। মুমিনুল হকের পরিবর্তে সাকিবের অধিনায়ক হওয়া নিয়ে সংশয়ের বিষয় ছিল এটিই। শনিবার (৪ জুন) শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের প্রশ্নে সিডন্স এমন মন্তব্য করেন। সঙ্গে আরও জানান সাকিব এবার ভিন্ন কিছু করবে।

‘সাকিব যদি অধিনায়কত্ব করতে চায়, তাহলে তাকে খেলতেই হবে। না খেলে তো অধিনায়কত্ব করা যাবে না। আমার মনে হয়, সে আবারও অধিনায়ক হওয়া নিয়ে খুবই রোমাঞ্চিত। আমি মনে করি সাকিবের নেতৃত্বগুণের এমন কিছু দিক এখন আমরা দেখতে পাবো, যা আগে কখনো দেখিনি।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ থেকে শুরু হবে অধিনায়ক সাকিবের তৃতীয় অধ্যায়। ঘটনাক্রমে আগের দুবারও ওয়েস্ট ইন্ডিজেই হয়েছিল। ইতোমধ্যে একাংশ ক্যারিবীয়ান দ্বীপের উদ্দেশে উড়াল দিয়েছে। মিরপুরে সিডন্স ব্যস্ত ছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-মুনিম শাহরিয়ারদের নিয়ে। তাদের নিয়ে ইনডোরে আলাদা কাজ করেন।

অধিনায়ক সাকিবের প্রশংসাও করেন সিডন্স। জানিয়েছেন দুটি ইতিবাচক দিকের কথা, ‘এখানে দুটি ইতিবাচক দিক আছে। সাকিব খুব ভালো অধিনায়ক। খেলা নিয়ে দারুণ পরিকল্পনা করতে পারে। পারফরম্যান্সের দিক থেকেও সে ধারাবাহিক। যে কারণে সবাই তাকে অনুসরণ করেন। সে অধিনায়ক হিসেবে দারুণ কিছুই করবে।’

সাকিব নেতৃত্বে আসায় মুমিনুল হক ব্যাটিংয়ে মনোযোগ দিতে পারবেন বলেও জানিয়েছেন সিডন্স। ক্রিকেট বোর্ডের মুমিনুল হককে সরানোর কোনো পরিকল্পনা ছিল না। কিন্তু ব্যাট হাতে ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বাজে সময় কাটানো মুমিনুল চাননি আর নেতৃত্ব দিতে। সিডন্স মনে করেন এবার ব্যাটসম্যান মুমিনুলকে পাওয়া যাবে।

বাংলাদেশের এই ব্যাটিং পরামর্শক বলেন, ‘আরেকটা ভালো দিক হচ্ছে, মুমিনুল এখন তার ব্যাটিংয়ে মনোযোগী হতে পারবে। সে কিছুদিন ধরে রান পাচ্ছিল না। এখন সে ব্যাটিংয়ে শতভাগ মনোযোগ দিতে পারবে। ওর পারফরম্যান্সটা আমাদের দরকার। আমরা সবাই জানি, সে ভালো ক্রিকেটার। সেই ক্রিকেটার ফিরে আসুক, আমরা এটাই চাই। অধিনায়কত্বের চাপ যেহেতু থাকছে না, আশা করি সে এখন সাচ্ছন্দে খেলতে পারবে।’

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ০৪ জুন

Back to top button