ঢালিউড

প্রচারণায় নেই মম: পরিচালক-নায়িকার কীর্তি ফাঁস করলেন প্রযোজক

ঢাকা, ০৪ জুন – তরুণ নির্মাতা অঞ্জন আইচ পরিচালিত ‘আগামীকাল’ গত ৩ জুন সারা দেশে মুক্তি পায়। সিনেমাটির গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন জাকিয়া বারী মম। কিন্তু সিনেমার প্রচারে অংশ না নিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েন ‘দারুচিনি দ্বীপ’খ্যাত এই নায়িকা। কেন প্রচারে অংশ নেননি এ প্রসঙ্গে মুখ খোলেননি তিনি।

যেখানে সিনেমার নায়ক ইমন, সূচনা আজাদসহ অন্যান্যরা প্রচারে সক্রীয় ভূমিকা রেখেছেন, সেখানে পুরো পারিশ্রমিক নিয়ে সিনেমার কাজ শেষ করেও কেন প্রচারে নেই মম? এমন প্রশ্ন চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্টদের।

এমন প্রশ্নের উত্তরে নির্মাতার অভিযোগের তীর মম’র দিকে হলেও সিনেমার প্রযোজন টুটুল ফাঁস করেছেন পর্দার আড়ালের ঘটনা।

টুটুল বলেন, ‘মম এই সিনেমার প্রি-প্রোডাকশনে সর্বোচ্চ পরিশ্রম করেছে। শুটিংয়ের সময়ও অনেক পরিশ্রম করেছে। শুটিংয়ের শেষ দিকে তিনি মনক্ষুণ্ন হন। তার অভিযোগ হলো- মূলত মম এই সিনেমার মেইন কাস্টিং। অথচ অঞ্জন (পরিচালক) মমকে রেখে সূচনাকে বেশি গুরত্ব দিতে শুরু করলো। যেমন সূচনার গানের শুটিং সে করলো একদিন, অন্যদিকে মমর গানের শুটিং করলো তিন ঘণ্টা। বিষয়গুলো মমর চোখে পড়েছে। তারপরও সে বুদ্ধিমতী মেয়ে, চুপচাপ ছিল। এরপর স্ক্রিপ্টে মম যতটা ছিল দেখা গেলো আস্তে আস্তে সূচনার স্ক্রিপ্ট বেড়ে যাচ্ছে। শট বেড়ে যাচ্ছে। পরিচালক সূচনার প্রতি বেশি অনুগত বলে এ ধরনের ঘটনা ঘটছিল।’

এ প্রসঙ্গে পরিচালকের সঙ্গে টুটুল কথা বলেছেন। বিষয়টি উল্লেখ করে এই প্রয়োজক বলেন, ‘আমি বলেছিলাম আপনি সূচনাকে যতই গুরুত্ব দেন মেইন নায়িকা মমকে অতিক্রম করবেন না। সে আমাকে বলেছে- সমস্যা নেই, নতুনদেরকেও উঠাতে হবে। শেষ পর্যন্ত আমরা ভালোভাবেই সিনেমাটি শেষ করলাম।’

এদিকে মম-সূচনাকে নিয়ে পরিচালক অঞ্জন ‘কানামাছি’ নামে নতুন সিনেমার শুটিং শুরু করেন। এই সিনেমায়ও মমকে কম গুরুত্ব দেওয়া হয় বলে জানান অভিনেতা ও প্রযোজক টুটুল। তিনি বলেন, ‘‘কানামাছি’ সিনেমাতেও একই ঘটনা ঘটেছে। দেখা গেলো এখানেও সূচনার ক্যারেক্টার একটু বড়, মমর ছোট। মম সিনেমাটিতে সাইনও করেছিল। কিন্তু পরে বিষয়টি বুঝতে পেরে সরে দাঁড়ায়। এরপর পত্রিকায় নিউজ আসলো- ‘কানামাছি’ থেকে বাদ পড়লো মম। এই নিউজটিই মূলত মমকে হার্ট করেছে।’

সূচনা নবাগতা। তার বাড়াবাড়ি নিয়ে এই প্রযোজক বলেন, ‘এরপরে সূচনা কি করলো একটু বোকামি করে বসলো। সে প্রচুর নিউজ করালো ‘‘সূচনা-ইমনের ‘আগামীকাল’ আসছে’’ এই টাইপের শিরোনামে। ‘সূচনা-ইমনের আগামীকাল’ বাক্যটা আমারও ভালো লাগেনি। আমি প্রযোজক, আমিও বলবো না- ‘টুটুলের আগামীকাল’। আমি যদি বলি, তাহলে বলতে পারি- ‘মমর আগামীকাল’। কারণ সে হলো ভাইটাল ক্যারেক্টার। এই নিউজগুলো পরিচালক প্রচুর শেয়ার দিয়েছে। এতে মম মনক্ষুণ্ন হয়েছে। এমনকি আমি তাকে (মম) একটা ডামি পোস্টার তৈরি করে পাঠিয়েছিলাম। সে আর ফটোশুট করতে রাজি হয়নি।’

‘মমকে বহুবার ফোন করেছি, সে ফোন রিসিভ করেনি। এসএমএস দিলাম, রিপ্লাই করেনি। এটা সত্য মম কষ্ট পেয়েছে। পাশাপাশি এটাও সত্য- পরিচালকের সঙ্গে সমস্যা তার থাকতেই পারে কিন্তু এই প্রোডাকশন প্রযোজকের। আজকে মমকে পাশে পেলে সিনেমাটি হয়তো আরো ভালো যেত।’

এ প্রসঙ্গে পরিচালক অঞ্জন আইচ বলেন, ‘এই সিনেমায় মমকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। সিনেমা দেখলেই বুঝতে পারবেন। আর শুটিংয়ে সূচনাকে সময় বেশি দেয়ার কথা যেটা বলা হচ্ছে, তা ঠিক নয়। ধরুন শুটিং টাইম ১০টা দেয়া হয়েছে সূচনাসহ অন্যান্যরা ঠিক টাইমেই আসছেন। অন্যদিকে মম লেট করে আসছেন। শুটিং স্পটে মম আসে তিনটায়। তখন স্বাভাবিকভাবে কম সময় পাচ্ছেন মম। অন্যদিকে সূচনা বেশি সময় পাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই।’

সূচনা বলেন, ‘আমাকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বিষয়টা সঠিক নয়। স্ক্রিপ্টে যা ছিল তাই আমাকে দেয়া হয়েছে। এর বেশি আমাকে দেয়া হয়নি। আর মম আপু সিনিয়র শিল্পী তার বিষয় আমি কিছু বলতে চাচ্ছি না। দাদার সঙ্গে মম আপুর কী ঝামেলা সেটা নিয়ে আমি বলবো না। কারণ মম আপু সিনিয়র শিল্পী তাকে নিয়ে বলতে চাচ্ছি না।’

কিন্তু বিষয়টি প্রসঙ্গে এর আগে নির্মাতা অঞ্জন আইচের সঙ্গে কথা হয় এই প্রতিবেদকের। তিনি তখন বলেছিলেন, ‘আমার প্রযোজকের সঙ্গে হয়তো তার (মম’র) সামথিং প্রবলেম। প্রযোজক আমাকে যেটা বলেছেন- তার কাছে হয়তো আরো এক্সট্রা অর্থ দাবি করেছেন মম। আইনত এটা ঠিক না। প্রযোজক অনেক সময় আমাকে এ কারণে তার বিরুদ্ধে স্টেপ নিতেও বলেছেন। আমি নেইনি।’

এ প্রসঙ্গে মম’র বক্তব্য অনেক চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি। তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এম এস, ০৪ জুন

Back to top button