ইউরোপ

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতের সতর্কতা রাশিয়ার

মস্কো, ০১ জুন – যুক্তরাষ্ট্র ইউক্রেনকে উন্নতমানের রকেট লাঞ্চার সরবরাহ করার ঘোষণা করেছে। এর প্রতিক্রিয়ায় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবকভ বুধবার (১ জুন) বলেছেন, এর মাধ্যমে ওয়াশিংটন মূলত রাশিয়ার সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে জড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি সৃষ্টি করেছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন জানিয়েছেন, তার দেশ ইউক্রেনকে দীর্ঘ পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করবে না, বরং মধ্যম পাল্লার উন্নত ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ করবে। ইউক্রেনের অভ্যন্তরে এসব অস্ত্র ব্যবহার করবে কিয়েভের সেনারা।

এ সম্পর্কে রিয়াবকভ বলেন, যুক্তরাষ্ট্র যদি ইউক্রেনকে রকেট লঞ্চার সরবরাহ করে তবে ওয়াশিংটনকে যুদ্ধের একটি পক্ষ হিসেবে গণ্য করা হবে। তিনি আরও বলেন, ওয়াশিংটন চলমান সংকটকে আরও বেশি বিপজ্জজনক করে তুলছে। যেকোনো অস্ত্র সরবরাহের ঘটনা পরিস্থিতিকে জটিল করবে ও সরাসরি সংঘাতের ঝুঁকি বাড়াবে বলেও জানান তিনি।

রুশ উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইউক্রেনকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার সঙ্গে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে বহু বছর ধরে তা নিরসন বা ঠেকানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্র কিছুই করেনি। এমনকি মস্কো সর্বশেষ আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের যে চেষ্টা চালিয়েছে তাতেও বাধা সৃষ্টি করেছে দেশটি। ফলে রাশিয়া সামরিক অভিযান শুরু করতে বাধ্য হয়েছে।

রিয়াবকভ বলেন, ইউক্রেনের সর্বশেষ যোদ্ধা বেঁচে থাকা পর্যন্ত সংঘাত জিইয়ে রাখতে চায় যুক্তরাষ্ট্র, যা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এটি নজিরবিহীন ও বিপজ্জনক।

তিনি বলেন, ইউক্রেনকে যুক্তরাষ্ট্র যে সব অস্ত্র সরবরাহ করতে যাচ্ছে তাতে পরিস্থিতির মৌলিক কোনো পরিবর্তন আনবে না বরং ঝুঁকি বাড়াবে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০১ জুন ২০২২

Back to top button