জাতীয়

স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার পাচ্ছেন রংপুর-রাজশাহীর সব গ্রাহক

ঢাকা, ০১ জুন – স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটারের আওতায় আসছে রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের সব গ্রাহক। এজন্য রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেডের (নেসকো) আওতাধীন এলাকায় স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার স্থাপন প্রকল্প অনুমোদন করা হয়েছে। ৭১২ কোটি ৬২ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে নেসকো।

আজ এই প্রকল্পসহ একনেক সভায় দুই হাজার ৬৬৫ কোটি ২১ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯ প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। দুই বছরেরও বেশি সময় পর সশরীরের একনেক বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (১ জুন) আগারগাঁওয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। ২০২০ সালের মার্চে দেশে করোনা শনাক্তের পর থেকে আর সশরীরে একনেক বৈঠকে উপস্থিত হননি প্রধানমন্ত্রী।

একনেক সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, একনেক সভায় দুই হাজার ৬৬৫ কোটি ২১ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত ৯টি প্রকল্প অনুমোদন করেছে। প্রকল্পটি জুলাই ২০২১ থেকে জুন ২০২৪ মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হবে।

প্রকল্প এলাকা
রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের ১৪টি জেলার ৩৩টি উপজেলা ও দুটি সিটি করপোরেশন এলাকা।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য
শতভাগ রাজস্ব আদায়, সিস্টেম লস এক শতাংশ হ্রাস, রিয়েল টাইম বিলিং পদ্ধতি চালু করা এবং ওভারবিলিং-আন্ডারবিলিং দূরীকরণ। গ্রাহক কর্তৃক অনলাইন বিল অ্যাকসেস ও পেমেন্ট এবং লোড নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাপনা বাস্তবায়ন ও গ্রাহক পর্যায়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার সাশ্রয় করা হবে।

প্রধান কার্যক্রমসমূহ
প্রকল্পের আওতায় ১১ লাখ ১৩ হাজার ৬০৮টি সিঙ্গেল ফেজ ও ৮৬ হাজার ৩৯২টি থ্রি-ফেজ স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার স্থাপন করা হবে। ১৩ হাজার ৬১৯টি ডাটা কনসেন্ট্রেটর ইউনিট স্থাপন, তিনটি হেড অ্যান্ড সিস্টেম ও ৭০টি হ্যান্ড হেল্ড ইউনিট স্থাপন করা হবে। ১২ লাখ মিটারের জন্য ডাটা ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম ও বিলিং সফটওয়্যার তৈরি করা হবে।

পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনার সঙ্গে সঙ্গতি
অষ্টম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনায় বিদ্যুৎ সঞ্চালন ও বিতরণ ব্যবস্থায় সিস্টেম লস হ্রাস করে একটি দক্ষ ও সাশ্রয়ী বিদ্যুৎ উৎপাদন কাঠামো তৈরি করা হবে। এর মাধ্যমে সবার জন্য সাশ্রয়ী, নির্ভরযোগ্য, আধুনিক ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎসেবা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। বিবেচ্য প্রকল্পের আওতায় স্মার্ট প্রি-পেমেন্ট মিটার স্থাপনের মাধ্যমে সিস্টেম লস হ্রাস ও গ্রাহক সেবার মানোন্নয়নের পাশাপাশি যথাসময়ে শতভাগ বিদ্যুৎ বিল আদায় করা সম্ভব হবে।

পরিকল্পনা কমিশনের মতামত
প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে নেসকোর আওতাভুক্ত সব গ্রাহককে স্মার্ট প্রি-প্রেমেন্ট মিটার ব্যবহারের আওতায় আনা এবং বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার ডিজিটাইজেশন, সিস্টেম লস হ্রাস, বিদ্যুৎ সাশ্রয় ও গ্রাহকসেবার মানোন্নয়নের পাশাপাশি শতভাগ রাজস্ব আদায় করা সম্ভব হবে। বিদ্যুৎ বিভাগের আওতায় নেসকো কর্তৃক বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাবিত প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ০১ জুন

Back to top button