জাতীয়

দক্ষিণবঙ্গের অর্থনৈতিক মুক্তির নামই পদ্মা সেতু: চিফ হুইপ

মাদারীপুর, ৩১ মে – বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ ও মাদারীপুর-১ (শিবচর) আসনের সংসদ সদস্য নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন বলেছেন, দক্ষিণবঙ্গের অর্থনৈতিক মুক্তির নামই পদ্মা সেতু। পদ্মা সেতু শুধু স্বপ্নের সেতু না, এটি অর্থনৈতিক মুক্তির সেতু। এই সেতুর ফলে দক্ষিণাঞ্চলে যে অর্থনৈতিক পরিবর্তন হবে তার নামই পদ্মা সেতু।

মঙ্গলবার (৩১ মে) দুপুরে মাদারীপুরের শিবচরে নূর-ই-আলম চৌধুরী অডিটোরিয়ামে প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক শিবচর শাখার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এই কথা বলেন। এই সময় প্রধান অতিথি হিসেবে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ উপস্থিত ছিলেন।

এক প্রশ্নের উত্তরে চীফ হুইপ বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে আগামী ২৫ জুন আসবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে ৮ জুন একটি সভা হবে। সেখানেই অনুষ্ঠানসূচি নির্ধারণ হবে। ২৫ জুন বেলা ১১ টায় শিবচরের কাঁঠালবাড়ি ঘাটে জনসভা অনুষ্ঠিত হবে। সে উপলক্ষে আগামীকাল থেকে আমাদের প্রস্তুতিমূলক সভা শুরু হবে। পদ্মা সেতু সারাদেশের সম্পদ, আমাদের দক্ষিণবঙ্গের চালিকা শক্তি। জনগণকে নিয়ে আমরা একটা জনসভা উপহার দেবো, জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ পদ্মা সেতু নিয়ে বলেন, প্রবাসীরা আমাদের জন্য যা করছেন তা আমরা মুখে বলি। আমরা দেখাই যে পদ্মা সেতু আমাদের বৈদেশিক মুদ্রাতেই হচ্ছে। কিন্তু আমাদের আরও পদ্মা সেতুর মতো সেতু তো দরকার আছে। একটা পদ্মা সেতু দিয়ে তো আর আমাদের হবে না। সেই হিসেব করে আমরা আরও রেমিটেন্স যাতে আনতে পারি সে জন্য আমাদের মন্ত্রণালয়ের কাজ আরও বাড়াতে চাই।

প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ও প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন এর সভাপতিত্বে এসময় জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহা-পরিচালক মো. শহিদুল আলম এনডিসি, প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জাহিদুল হক, মাদারীপুর জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন, জেলা পরিষদের প্রশাসক মুনির চৌধুরী, পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল পিপিএম, মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র মো. খালিদ হোসেন ইয়াদ, শিবচর উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ আ: লতিফ মোল্লা, পৌরসভার মেয়র মো. আওলাদ হোসেন খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এম রকিবুল হাসান, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ শাজাহান মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক ডা. মো. সেলিম, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জেল হোসেন খান তোতাসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী ও চিফ হুইপ শিবচরের দত্তপাড়ায় স্বাধীনতা পদক প্রাপ্ত মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ইলিয়াস আহমেদ চৌধুরীর (দাদা ভাই) কবর জিয়ারত করে মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা ও দোয়া করেন। পরে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড ঘুরে দেখেন।

সূত্র : ইত্তেফাক
এম এস, ৩১ মে

Back to top button