ক্রিকেট

শচীনের আইপিএল একাদশের অধিনায়ক পান্ডিয়া

মুম্বাই, ৩১ মে – হার্দিক পান্ডিয়ার বিস্ময়কর নেতৃত্বে ১৫তম আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নবাগত গুজরাট টাইটান্স। টুর্নামেন্ট শুরুর আগেও যে দলকে নিয়ে বাজি ধরার লোক ছিল হাতে গোনা, তাদের হাতেই উঠলো ট্রফি। অন্যদিকে বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা প্রত্যাশার ছিটেফোটাও পূরণ করতে পারেননি। সব মিলিয়ে টুর্নামেন্টে ৭৪ ম্যাচের লড়াইয়ের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে ভারতীয় ব্যাটিং গ্রেট শচীন টেন্ডুলকার তার সেরা একাদশ বাছাই করেছেন।

প্রত্যাশিতভাবে শচীনের একাদশের অধিনায়ক পান্ডিয়া। তৃতীয় অধিনায়ক হিসেবে আইপিএল ফাইনালে ম্যাচসেরা হন এই অলরাউন্ডার। তাকেই দলটির নেতৃত্ব দিয়েছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সাবেক এই ব্যাটিং তারকা।

শচীনের একাদশে পাঞ্জাব কিংসের শিখর ধাওয়ানের সঙ্গে ওপেনিংয়ে আছেন ৮৬৩ রান করে অরেঞ্জ ক্যাপ জেতা রাজস্থান রয়্যালসের জস বাটলার।

মিডল অর্ডারে লোকেশ রাহুল, পান্ডিয়া, ডেভিড মিলার ও লিয়াম লিভিংস্টোনকে রেখেছেন শচীন। চার খেলোয়াড়েরই দারুণ মৌসুম কেটেছে। রাহুল লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের হয়ে ছয়শর বেশি রান করে সামনে থেকে দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। হার্দিক তো প্রায় পাঁচশ রানের পাশাপাশি নিয়েছেন ৮ উইকেট।

মিলার ছিলেন অনবদ্য। ১৬ ম্যাচে ৬৮.৭১ গড় ও প্রায় ১৪৩ স্ট্রাইক রেটে ৪৮১ রান করেন। ছক্কা মারায় পারদর্শীতা দেখিয়ে নজর কেড়েছেন লিভিংস্টোন, টুর্নামেন্টের সবচেয়ে লম্বা ১১৭ মিটার ছয় এসেছে তার ব্যাট থেকে।

শচীন তার একাদশে ফিনিশিংয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন দিনেশ কার্তিককে। ১৬ ম্যাচে ৫৫ গড়ে ১৮৩.৩৩ স্ট্রাইক রেটে ৩৩০ রান করেছেন। আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দলেও ডাক পেয়েছেন তিনি।

ভারতীয় ব্যাটিং মায়েস্ত্রো বোলিং আক্রমণের নেতৃত্ব দিয়েছেন যশপ্রীত বুমরার হাতে। যদিও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স বোলারের সময় ভালো যায়নি। ১৪ ম্যাচে নেন ১৫ উইকেট, কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে নিয়েছিলেন পাঁচ উইকেট। তার বোলিং বিভাগের অন্যরা হলেন মোহাম্মদ শামি, যুজবেন্দ্র চাহাল ও রশিদ খান।

শচীনের সেরা আইপিএল একাদশ: জস বাটলার, শিখর ধাওয়ান, ডেভিড মিলার, লোকেশ রাহুল, হার্দিক পান্ডিয়া, লিয়াম লিভিংস্টোন, দিনেশ কার্তিক, যশপ্রীত বুমরা, মোহাম্মদ শামি, যুজবেন্দ্র চাহাল ও রশিদ খান।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ৩১ মে

Back to top button