ইউরোপ

এবার নেদারল্যান্ডসে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করল রাশিয়া

মস্কো, ৩১ মে – রুবলের মাধ্যমে অর্থ প্রদান না করায় নেদারল্যান্ডসে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে রাশিয়া। এর আগে ইউরোপের আরও তিন দেশে একই কারণে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে তারা।

মঙ্গলবার রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি এ খবর জানিয়েছে।

রাশিয়ার জ্বালানি জায়ান্ট গ্যাজপ্রোম মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে যে, তারা ডাচ রাষ্ট্রীয় জ্বালানি সংস্থা গ্যাসটেরার কাছে ‘সম্পূর্ণভাবে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করেছে।’

রুশ কোম্পানি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘৩০ মে ব্যবসায়িক দিন শেষ হওয়ার পর গ্যাজপ্রোম এক্সপোর্ট এপ্রিল মাসে গ্যাসের সরবরাহের জন্য গ্যাসটেরার কাছ থেকে মূল্যের অর্থ পায়নি।’

এর আগে গ্যাসটেরা বলেছিল, তারা গ্যাসের ঘাটতি মেটাতে ব্যবস্থা নিয়েছে। ডাচ কোম্পানিটি এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘গ্যাজপ্রোম দ্বারা সরবরাহ বন্ধ করার অর্থ হল- চুক্তি শেষ হওয়ার তারিখ ১ অক্টোবর, ২০২২ পর্যন্ত প্রায় ২ বিসিএম চুক্তিবদ্ধ গ্যাস সরবরাহ করা হবে না।’

এর আগে গত এপ্রিলের শেষদিকে গ্যাজপ্রোম বুলগেরিয়া ও পোল্যান্ডে গ্যাস রপ্তানি স্থগিত করে। পরে মে মাসে ফিনল্যান্ডে সরবরাহ বন্ধ করে দেয়। বর্তমানে রাশিয়ার মুদ্রা রুবেলের মাধ্যমে অর্থপ্রদানের চাহিদা প্রত্যাখ্যান করায় ডেনমার্কও সরবরাহ বন্ধের সম্মুখীন হতে পারে।

রাশিয়ার জন্য ডলারের ব্যবহার বন্ধ করে দেয়ার পর দেশটি কথিত ‘অবন্ধু’ দেশগুলোর জন্য রুবলের ব্যবহার চালু করে। কিন্তু ইউরোপের অনেক দেশ রুবলের মাধ্যমে গ্যাসের মূল্য প্রদান করার বিরোধিতা করতে থাকে।

চলতি মাসের শুরুতে জার্মানি ও ইতালি নতুন প্রাকৃতিক গ্যাস পেমেন্ট স্কিম মেনে চলার জন্য এবং সরবরাহ বন্ধ এড়াতে রাশিয়ার গ্যাজপ্রোম ব্যাংকের সাথে রুবেল অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য জাতীয় কোম্পানিগুলোকে অনুমতি দিয়েছে। রাশিয়ার জ্বালানি মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, সব মিলিয়ে দুই ডজন ইউরোপীয় কোম্পানি এখন পর্যন্ত রুবল অ্যাকাউন্ট খুলেছে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/৩১ মে ২০২২

Back to top button