ক্রিকেট

‘অধিনায়ক’ মুমিনুলের ভবিষ্যৎ নিয়ে আলোচনায় বসবে বিসিবি

ঢাকা, ৩০ মে – ব্যাট হাতে ফর্মে নেই বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক। একই দশা টেস্ট দলেরও। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট জয়ের পর কাঙ্ক্ষিত সাফল্য মিলছে না বাংলাদেশের। দলের এমন অবস্থায় সবচেয়ে বেশি সমালোচনার শিকার হচ্ছেন মুমিনুলই।

ব্যাট হাতে সর্বশেষ ১৫ ইনিংসে এই ব্যাটারের রান মাত্র ১৭৬। এরমধ্যে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এক ইনিংসে আছে ৮৮ রানের ইনিংস। সেই ইনিংস বাদ দিলে চরম বাজে সময় পার করছেন মুমিনুল। এরমধ্যে তিনটা শূন্য দেখেছেন তিনি। কেবল সাম্প্রতিক সময় নয়, অধিনায়ক হওয়ার পর থেকেই ব্যাট হাতে মুমিনুলের ফর্ম পড়তির দিকে।

অধিনায়ক বিহীন ছয় বছরের ক্যারিয়ারে ৩৬ টেস্ট খেলে ৮টি শতক ও ১৩ ফিফটিতে ২৬১৩ রান করেছিলেন মুমিনুল। যেখানে তার গড় ছিল ৪১ এর বেশি। তবে অধিনায়ক হওয়ার পর সেই গড় নেমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ৩১ এ। ফলে প্রশ্ন উঠছে অধিনায়কত্বের চাপই কী মুমিনুলের সেরা পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রধান অন্তরায়। সবাই তাই মনে করছে। মুমিনুলের গুরু নাজমুল আবেদীন ফাহিমও তাই মনে করছেন।

ফলে ‘অধিনায়ক’ মুমিনুলের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। তবে এই সিদ্ধান্ত বিসিবি নিজেরাই নিতে চাইছে না। মুমিনুলের সঙ্গে আলোচনা শেষে একটা সিদ্ধান্তে আসতে চাইছে বিসিবি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগেই হয়তো জানা যাবে ‘অধিনায়ক’ মুমিনুলের ভবিষ্যৎ।

মুমিনুলের অধিনায়কত্ব ও এর ভবিষ্যৎ নিয়ে ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস আজ (৩০ মে) গণমাধ্যমে বলেন, ‘অধিনায়কত্ব বাড়তি একটা চাপ অবশ্যই। ব্যাটিং করার সময় সে রান না পাওয়ায় হয়তো বাকিদের অনুপ্রাণিত করতে সমস্যা হচ্ছে। যেহেতু রান করছে না, একটা হীনম্মন্যতা থাকতে পারে। সেটা থেকেই হয়তো চাপ বেশি হয়ে যাচ্ছে।

ব্যাটিংয়েও এর একটা প্রভাব পড়তে পারে। হয়তো সে সিদ্ধান্ত নেবে কোনটা হলে ওর ভালো হয়। এটা নিয়েই আমাদের সঙ্গে বসার কথা আছে। প্রেসিডেন্ট সাহেব আসুক, এটা নিয়ে আলাপ করব।’

প্রায় একই কথা মুমিনুলের ক্রিকেট গুরু নাজমুল আবেদীনের কণ্ঠেও। তিনি বলেন, ‘মুমিনুল রান করলে অধিনায়কত্ব নিয়ে এত কথা উঠত না। যেহেতু ভালো করছে না, এটা নিয়ে চাপ হচ্ছে—এমন কথা উঠবেই। সে প্রশ্নের উত্তর তাকে দিতে হচ্ছে। একটু চাপ তো থাকবেই।’

তবে সব চাপ কাটিয়ে রানে ফেরার তাগিদে নাজমুল আবেদীন ফাহিমের সঙ্গে একাকী কাজ শুরু করেছেন মুমিনুল। উইন্ডিজ সিরিজেই নিজের সেরা ফর্মে ফিরতে চাইছেন টাইগারদের টেস্ট অধিনায়ক। এখন দেখা যাক, ‘অধিনায়ক’ মুমিনুলের ভবিষ্যৎ কোন পথে এগোয়!

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ৩০ মে

Back to top button