বলিউড

ঘুম না এলে গাঁজা খেতেন শাহরুখ-পুত্র!

মুম্বাই, ২৯ মে – চার বছর আগে তখন আমেরিকায় পড়তে গিয়েছেন শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান। নতুন পরিবেশ। পরিবার, বন্ধুবান্ধব ছেড়ে রাতে কিছুতেই ঘুম আসত না তার। তাই গাঁজা জোগাড় করে ফেললেন। স্থানীয় এক সরবরাহকারীর থেকে গাঁজা আনিয়ে দিতেন আরিয়ানের বন্ধু আচিত। তবে সরবরাহকারীকে নাকি চোখেই দেখেননি কোনওদিন তিনি। কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থার (এনসিবি) চার্জশিটে এমনই বয়ান ছিল শাহরুখ পুত্রের।

আরিয়ানের দাবি, ইন্টারনেট ঘেঁটে জেনেছিলেন ঘুম না এলে এই পন্থা নেওয়া যেতে পারে। সে নিয়ে অভিনেত্রী অনন্য পাণ্ডের সঙ্গে আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথনও প্রকাশ্যে এসেছিল। আরিয়ান নিজেও জেরার মুখে স্বীকার করেন, ঘুম আনার জন্য যে গাঁজা খাচ্ছেন, সে কথা অনন্যাকে বলেছেন তিনি।

এদিকে, এনসিবি-তদন্তের সময়ে অনন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্পষ্টই এড়িয়ে যান। বলেন, ওটা তো মজা করছিলাম আমরা। আরিয়ান যদি বলে থাকে, মিথ্যে বলেছে। এ রকম কিছু ও আমায় বলেনি।

২০২১-এর অক্টোবরে যেদিন মুম্বাইয়ের প্রমোদতরী থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল আরিয়ান ও তার সঙ্গীদের, গোটা দেশ ছি ছি করেছিল কিং খান ও তার পুত্রকে। প্রায় এক মাস জেলে কাটিয়ে জামিনে ছাড়া পেয়েছিলেন আরিয়ান। তার সঙ্গী, বন্ধু আরবাজ মার্চেন্টের সরঞ্জাম তল্লাশি করে সামান্য গাঁজা পাওয়া যেতেই দুয়ে দুয়ে চার করা হয়েছিল।

যদিও পরে জানা গিয়েছে, সেই গাঁজা পাচারের উদ্দেশ্যে তারা সঙ্গে নেননি। এমনকি আরিয়ান সেবন করবেন বলেই যে গাঁজা সঙ্গে রেখেছিলেন আরবাজ, এমনটাও প্রমাণিত হয়নি। এ-ও জানা গিয়েছে যে দেশি বা বিদেশি কোনও পাচারচক্রের সঙ্গেই শাহরুখ-পুত্রের যোগ নেই।

তবু দীর্ঘদিন ধরে টানাপড়েন চলতেই থাকে। শেষমেশ বছর ঘুরতে এনসিবি জানায়, নাম জড়ালেও মাদক পাচার-কাণ্ডে হাত ছিল না শাহরুখ-পুত্রর। শুক্রবার এনসিবির পেশ করা চার্জশিটে তাকে বেকসুর খালাস ঘোষণা করার পরেই নতুন করে শোরগোল। আর তাতেই বেরিয়ে এসেছে আরিয়ানের এই অতীত-অভ্যাসের কথা।

এম এস, ২৯ মে

Back to top button