মধ্যপ্রাচ্য

মাটির নিচে বিশাল ড্রোন ঘাঁটি ইরানের

তেহরান, ২৯ মে – ভূগর্ভে ড্রোনের ঘাঁটি বানিয়েছে ইরান। এরই কিছু ভিডিও প্রকাশ করেছে ইরানি সেনাবাহিনী।

তবে এর ঠিকানা জানানো হয়নি।
সম্প্রতি তেহরানে বন্দুকধারীদের হামলায় রেভল্যুশনারি গার্ড বাহিনীর কর্নেল হাসান সায়াদ খোদাই নিহত হয়। এ হত্যাকাণ্ডের বদলার হুমকি দিয়েছে তেহরান। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই এই ভিডিও প্রকাশ করলো ইরানের সেনাবাহিনী।
ইরানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যমের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, জাগ্রোস পর্বতমালায় ১০০টি টি ড্রোন রাখা হয়েছে। এরমধ্যে আবাবিল-৫ নামে একটি ড্রোন রয়েছে। এরমাধ্যমে এয়ার টু সারফেস ক্ষেপণাস্ত্র কায়েম-৯ আঘাত হানতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্রটি ইউএস হেলফায়ারের মতো করে তৈরি করেছে ইরান।

ইরানের সেনা কমান্ডার মেজর জেনারেল আব্দুর রহিম মুসাভি বলেন, নিঃসন্দেহে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর ড্রোন এই অঞ্চলের মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী। ড্রোন আপগ্রেড করার পর আমাদের সক্ষমতা আরও বেড়েছে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যমের সাংবাদিক রয়টার্সকে জানান, তিনি বৃহস্পতিবার (২৬ মে) পশ্চিম ইরানের কেরমানশাহ থেকে ৪৫ মিনিট হেলিকপ্টারে চড়ে একটি গোপন ভূগর্ভস্থ ড্রোনের ঘাঁটিতে যান। তাকে চোখ বেঁধে সেখানে নিয়ে যাওয়া হয়।

টিভি ফুটেজে দেখা গেছে, একটি সুড়ঙ্গে ক্ষেপণাস্ত্র লাগানো বেশ কয়েকটি ড্রোন । বলা হচ্ছে, এটি ভূগর্ভের কয়েকশ মিটার নিচে অবস্থিত।

সূত্র: বাংলানিউজ
এম ইউ/২৯ মে ২০২২

Back to top button