মধ্যপ্রাচ্য

গ্রিসের আটক ২ জাহাজে তেল আছে ১৮ লাখ ব্যারেল

তেহরান, ২৯ মে – পারস্য উপসাগর থেকে গ্রিসের তেলবাহী যে দুটি জাহাজ আটক করেছে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী (আইআরজিস) তাতে অপরিশোধিত তেল রয়েছে ১৮ লাখ ব্যারেল।

ইরানের গণমাধ্যমগুলো এই খবর দিয়েছে।

শনিবার আইআরজিসি’র সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ইরানের আধা সরকারি বার্তা সংস্থা ফার্স জানিয়েছে, আটক দুটি জাহাজের প্রত্যেকটি দেড় লাখ মেট্রিক টন অপরিশোধিত তেল বহনে সক্ষম। খবর-পার্সটুডের।
শুক্রবার আইআরজিসি তেলবাহী জাহাজ দুটিকে পারস্য উপসাগরের ইরানি পানিসীমা থেকে আটক করে।

ফার্স নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইরাকের বসরা বন্দর থেকে গ্রিসের ডেল্টা পজিডন জাহাজটি অপরিশোধিত তেল বোঝাই করে দেশের উদ্দেশে রওয়ানা হয়। পরে ইরানি পানিসীমা লঙ্ঘন করলে আইআরজিসি জাহাজটিকে আটক করে ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় আসালুয়ে বন্দরে নিয়ে যায়। গ্রিসভিত্তিক আন্তর্জাতিক জাহাজ পরিচালনা কোম্পানি ‘ডেল্টা শিপস’ এই ডেল্টা পজিডন জাহাজটি পরিচালনা করছিল।

গ্রিসের অন্য তেলবাহী জাহাজ প্রুডেন্ট ওয়ারিয়র পাঁচ বছর বয়সী একটি জাহাজ যেটি ইরানের ফারোর দ্বীপের কাছ থেকে আটক করে আইআরজিসি। সমুদ্র আইন ভঙ করার কারণে এই জাহাজটি আটক করা হয়।

মেরিন ট্রাফিক ওয়েবসাইটের তথ্য মতে, এ জাহাজটি কাতারের রাস লাফফান বন্দর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের একটি বন্দরের দিকে রওয়ানা দিয়েছিল। এর দুই দিন আগে গ্রিসের একটি দ্বীপে আটক ইরানের তেলবাহী জাহাজ জব্দ করতে আমেরিকাকে অনুমতি দেয় এথেন্স সরকার।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
এম ইউ/২৯ মে ২০২২

Back to top button