জাতীয়

দুর্নীতির মামলায় তারেক-জোবায়দার শুনানি ৫ জুন

ঢাকা, ২৯ মে – অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমানের রিট মামলার রুল শুনানির দিন পিছিয়ে আগামী ৫ জুন দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে শুনানি হবে তারেক-জোবায়দা বিদেশে পলাতাক থাকায় আইনজীবী নিয়োগ করতে পারবেন কি না, এ বিষয়ে।

রোববার (২৯ মে) তারেক-জোবায়দার আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের বেঞ্চ এদিন ধার্য করেন।

আদালতে তারেক-জোবায়দার পক্ষে শুনানি করেন সিনিয়র আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী ও ব্যারিস্টার কায়সার কামাল। দুদকের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

আদালতে দুদকের আইনজীবী প্রশ্ন তুলে বলেন, পলাতক থাকা অবস্থায় তারেক রহমান ও জোবায়দা রহমান আইনজীবী নিয়োগ করতে পারেন না।

তখন আদালত বলেন, পলাতক থাকা অবস্থায় তারেক রহমান ও জোবায়দা রহমান আইনজীবী নিয়োগ করতে পারেন কি না, ৫ জুন এ বিষয়েও শুনানি হবে।

এর আগে ২০০৭ সালে জরুরি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে করা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় তারেক ও তার স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমানের রিট মামলার রুল শুনানির জন্য আজকের দিন ধার্য করেছিলেন আদালত। গত ২০ এপ্রিল আদালত এই দিন ধার্য করেন।

অবৈধ উপায়ে ৪ কোটি ৮২ লাখ টাকার সম্পদ অর্জন ও সম্পদ বিবরণীতে তথ্য গোপনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর লন্ডনে অবস্থানরত তারেক রহমান, তার স্ত্রী জুবাইদা ও তার মা ইকবাল মান্দ বানুর বিরুদ্ধে কাফরুল থানায় মামলাটি করে দুদক।

পৃথক রিট পিটিশনের প্রেক্ষিতে, হাইকোর্ট একই বছর সরকার ও দুদককে কেন তৎকালীন জরুরি ক্ষমতা বিধির অধীনে মামলা দায়ের এবং শুরু করা অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা ব্যাখ্যা করতে পৃথক রুল জারি করে। হাইকোর্টও মামলার বিচার কার্যক্রম স্থগিত রাখেন।

সূত্র : আরটিভি
এম এস, ২৯ মে

Back to top button