দক্ষিণ এশিয়া

রাশিয়ার অপরিশোধিত তেলেই ভরসা শ্রীলঙ্কার

কলম্বো, ২৭ মে – গ্যাসোলিন থেকে ডিজেল সব রকমের জ্বালানি সঙ্কটে ভুগছে শ্রীলঙ্কা। তাই রাশিয়া থেকে পাওয়া অপরিশোধিত তেলেই ‘দেউলিয়া’ শ্রীলঙ্কা এই জ্বালানি সঙ্কট কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে।

এক মুঠোফোন সাক্ষাৎকারে শ্রীলঙ্কার সিলন পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান সুমিথ বিজেসিংহে জানিয়েছেন, ‘রাশিয়ান গ্রেড অব সাইবেরিয়া লাইট’ হয়ে আসা অপরিশোধিত তেল সাপুগাসকান্দায় প্রক্রিয়াজাত করা হবে।’

২৮ মে (শনিবার) এই অপরিশোধিত তেল পাওয়া যাবে। ফলে দুই মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকা তেল শোধনাগারটি আবারও চালু হতে যাচ্ছে। আগেই টুইটে এ কথা জানিয়েছিলেন শ্রীলঙ্কার অর্থমন্ত্রী।
রাশিয়ার ইউক্রেন অভিযানের পর বিশ্বজুড়ে নিন্দা আর নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই সবশেষ এশীয় দেশ হিসেবে শ্রীলঙ্কাই রাশিয়ার অপরিশোধিত তেল গ্রহণ করছে।

সাপুগাসকান্দায় শোধনাগারে ‘সার্বিয়ান লাইটের’ অপরিশোধিত তেল ব্যবহার করা হবে বলেই জানিয়েছেন বিজেসিংহে। এই শোধনাগারে দুবাই’র ‘মুরবান’ ও ‘ইরানিয়ান লাইট অয়েলও’ শোধন করা হয়। তবে রাশিয়া থেকে আসা এই তেলের মূল্য শ্রীলঙ্কা কীভাবে পরিশোধ করবে তা এখনও পরিষ্কার নয় বলেই জানিয়েন বিজেসিংহে।

আজ শুক্রবার এক টুইটবার্তায় বিজেসিংহে বলেন, ‘২০ মার্চের পর এই প্রথম সাপুগাসকান্দা শোধনাগার কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে, আগামীকালই একটি তেলবাহী কার্গো আনলোড করা হবে।’ ‘শোধানাগারটি ছয় দিন পর থেকে তেল উৎপাদন শুরু করতে পারবে।’

নিসোস ডেলোস নামের একটি কার্গো জাহাজে করে ‘সার্বিয়ান লাইটের’ একটি অপরিশোধিত তেলের চালান প্রায় ১ মাসের যাত্রায় শ্রীলঙ্কায় নোঙর করেছে। সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের তথ্য বলছে, জাহাজটি কৃষ্ণসাগরের নিকটবর্তী বন্দর থেকে এ বছরের ২৯ মার্চ যাত্রা করেছিল।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন
এম ইউ/২৭ মে ২০২২

Back to top button