উত্তর আমেরিকা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি নিম্নমুখী

ওয়াশিংটন, ২৭ মে – চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে অর্থাৎ জানুয়ারি-মার্চে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতির আকার কমেছে। যদিও দেশটিতে ভোক্তা ও ব্যবসায়ীদের ব্যয় স্বাভাবিক গতিতে চলছে। আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

জানা গেছে, শেষ প্রান্তিকে যুক্তরাষ্ট্রের জিডিপি কমেছে। তবে এতে মন্দা নিয়ে আশঙ্কার কিছু নেই। বাণিজ্য ঘাটতিতে এমন অবস্থা তৈরি হয়েছে। সম্প্রতি অন্যান্য দেশের তুলনায় দেশটির আমদানি ব্যয় বেড়েছে। বাণিজ্য ঘাটতি মূলত যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে।

বেশি কিছু কারণে ২০২১ সালের শেষ প্রান্তিকে পণ্যের সংরক্ষণ কার্যক্রমে ধীর গতি আসে। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে। জিডিপি থেকে ছিটকে গেছে এক দশমিক এক শতাংশ পয়েন্ট।

এদিকে বিশ্লেষকরা জানিয়েছে, চলতি প্রান্তিকে অর্থাৎ এপ্রিল-জুনে অর্থনীতি সম্ভবত ঘুরে দাঁড়াচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য বিভাগ জানিয়েছে, বার্ষিকভিত্তিতে জানুয়ারি থেকে মার্চে অর্থনীতি এক দশমিক পাঁচ শতাংশ সংকুচিত হয়েছে, যা পূর্বাভাসের এক দশমিক চার শতাংশের চেয়ে সামান্য বেশি। ২০২০ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকের পর এটাই দেশটির অর্থনীতির প্রথম সংকোচন। করোনার ধাক্কা কাটিয়ে ২০২১ সালের শেষ প্রান্তিকে দেশটির অর্থনীতি ছয় দশমিক নয় শতাংশ সম্প্রসারিত হয়।

রাশিয়ার ও ইউক্রেনের মধ্যে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর দেশটির মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে। বেড়ে গেছে মানুষের জীবনযাত্রার ব্যয়। পরিবারের খরচ চালাতে হিমশিম খাচ্ছে সাধারণ মানুষ।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২৭ মে ২০২২

Back to top button