ইউরোপ

বন্দি বিনিময় নিয়ে কথা বলার ‘সময় এখনও’ হয়নি

মস্কো, ২৫ মে – আত্মসমর্পণ করা ইউক্রেনীয় সেনাদের বিচারের মুখোমুখি করার আগে কিয়েভের সঙ্গে বন্দি বিনিময়ের বিষয়টি বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত হবে ‘অপরিপক্ক’।

রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী আন্দ্রেই রুদেনকো এ কথা বলেন। খবর বিবিসির।

রুশ সংবাদমাধ্যম ইন্টারফেক্সকে তিনি বলেন, আত্মসমর্পণ করা ইউক্রেনীয় সেনাদের ‘যথাযথভাবে দোষী সাব্যস্ত ও দণ্ডিত’ করার পর মস্কো কিয়েভের সঙ্গে বন্দি বিনিময়ের বিষয়টি বিবেচনা করবে।

এর আগে, বন্দি বিনিময় নিয়ে সব ধরনের আলোচনা হবে ‘অপরিণত’, যোগ করেন তিনি।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি সোমবার রাতে বলেছিলেন, কিয়েভ বন্দি বিনিময়ের জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

এর পর তিনি আন্তর্জাতিক মিত্রদের প্রতি অনুরোধ জানান, যেন এ বিষয়ে মস্কোকে চাপ দেওয়া হয়।

জেলেনস্কির এ বক্তব্যের পর রাশিয়ার পক্ষ থেকে এর জবাব এলো।

বন্দরনগরী মারিওপোলের আজভস্টল ইস্পাত কারখানা থেকে আত্মসমর্পণ করা শত শত ইউক্রেনীয় সেনার কপালে কী অপেক্ষা করছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। যাদের রুশ নিয়ন্ত্রিত এলাকায় সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা শুরু করে। এর পর দ্রুত গতিতে রাজধানী কিয়েভের দিতে এগোতে থাকে রুশ সেনারা। কিন্তু হঠাৎ ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চল থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেয় রাশিয়া।

এমন পরিস্থিতিতে দোনবাস ও দক্ষিণ ইউক্রেন দখলে নেওয়ার উচ্চাকাঙক্ষার কথা জানায় মস্কো। এর পর গুরুত্বপূর্ণ বন্দরনগরী মারিওপোল দখলে নিয়েছে রুশ সেনারা। এর মধ্যে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলে রাশিয়া সর্বাত্মক হামলা শুরু করেছে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২৫ মে ২০২২

Back to top button