ঢালিউড

কান উৎসবে সুনেরাহ’র ‘মশারি’, পেলো প্রশংসা

ঢাকা, ২৪ মে – বিশ্ব চলচ্চিত্রের অন্যতম বড় আসর কান চলচ্চিত্র উৎসব শুরু হয়েছে কিছুদিন আগে। এ উৎসবে স্বর্ণপামের জন্য এবার লড়ছে বিভিন্ন দেশের ২২টি সিনেমা। এ ছাড়া আঁ সার্তে রিগা বিভাগে থাকছে ২০টি সিনেমা। প্রতিযোগিতার বাইরে দেখানো হবে ৬টি, মিড নাইট স্ক্রিনিং হবে ৪টি এবং কানে প্রিমিয়ার হবে ৮টি সিনেমার। ১২ দিনের এই আয়োজন শেষ হবে ২৮ মে।

এবারের উৎসবের এই বিশ্বমঞ্চে রয়েছে বাংলাদেশের সরব উপস্থিতি। বাংলাদেশের একাধিক তারকার দেখা মিলেছে কান চলচ্চিত্র উৎসবের এবারের আসরে।

নতুন খবর হলো, প্রতিবছরের মতো এবারও মার্শে দ্যু ফিল্মের ‘ফ্যান্টাস্টিক সেভেন’ ইভেন্টের জন্য নির্দিষ্ট ঘরানার নবীন প্রতিভাবানদের তুলে ধরে বিশ্বের এমন শীর্ষস্থানীয় সাতটি উৎসবের সাতটি চলচ্চিত্র নির্বাচন করা হয়েছে, তাদেরকে অফিশিয়ালি আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

এই ইভেন্টে বাংলাদেশ থেকে অফিশিয়ালি নির্বাচিত হয়েছে নুহাশ হুমায়ূনের স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘মশারি’।ব্যস্ততার কারণে কান উৎসবে উপস্থিত থাকতে পারেন নি নুহাশ। গত ২১ মে তার ছবিটি সেখানে প্রদর্শিত হয়েছে এবং প্রশংসা পেয়েছে।

একটি রক্তপিপাসু পোকার আক্রমণে পৃথিবী জনমানব শূন্য হয়ে যাচ্ছে। সর্বশেষ দুজন মানুষ বেঁচে আছে ঢাকায়। তারাই হলো অপু ও আইরা। একটা সময় তারা বুঝতে পারে সেই রক্তপিপাসু পোকার হাত থেকে বেঁচে থাকার হাতিয়ার হলো মশারি!-এমনই গল্পে নির্মিত হয়েছে এই ভৌতিক ছবিটি। পৃথিবী ধ্বংসের শেষপ্রান্তে এসে দুই বোনের গল্প উঠে আসবে এতে। দুই বোনের চরিত্রে এখানে অভিনয় করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামাল, নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের নাতনি অনোরা (অভিনেত্রী শিলা আহমেদের মেয়ে) প্রমুখ।

কান উৎসবে নিজের চলচ্চিত্র প্রদর্শিত হবে এমন খবরে বেশ আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত সুনেরাহ বিনতে কামাল। তিনি বলেন, বিশ্ব চলচ্চিত্রের এত বড় উৎসবে আমার ছবি প্রদর্শিত হবে, এর চেয়ে বড় আনন্দ বা প্রাপ্তি কি হতে পারে, আমার জানা নেই। খবরটা শোনার পর থেকেই আমি রীতিমত আনন্দে ভাসছি। কিন্তু কিছুটা খারাপ লাগা রয়েছে, কারণ এটা জানতে পেরেছি মাত্রই। আগে জানতে পারলে হয়তো সেখানে যাওয়ার প্রস্তুতি নিতাম। সবকিছু এত দ্রুত ঘটে গিয়েছে, আমরা কেউই যেতে পারিনি। তবে শুনেছি, সেখানে সবাই আমাদের ছবিটি পছন্দ করেছেন, প্রশংসা পেয়েছে বেশ।

এর আগে গেল ১৩ মার্চ চলচ্চিত্রটি দেখানো হয় যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে সাউথ বাই সাউথ-ওয়েস্ট চলচ্চিত্র উৎসবে। আগামীতে আরও বেশ কিছু চলচ্চিত্র উৎসবে ছবিটি অংশ নেবে বলে জানা গেছে।

এম এস, ২৪ মে

Back to top button