দক্ষিণ এশিয়া

পিটিআই নেতাদের বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশি, গুলিতে পুলিশ নিহত

ইসলামাবাদ, ২৪ মে – পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআইয়ের নেতাদের বাড়িতে বাড়িতে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করেছে পুলিশ।

জিও টিভি অনলাইনের খবরে বলা হয়, সোমবার গভীর রাতে পাঞ্জাব পুলিশ সাবেক জ্বালানি মন্ত্রী হাম্মাদ আজহার, উসমান দার এবং বাবর আওয়ানসহ একাধিক পিটিআই নেতার বাড়িতে অভিযান চালায়। লাহোরে অভিযান চালানোর একজন পুলিশ কনস্টেবলকেও গুলি করে হত্যা করা হয়।

পিটিআই-এর (তেহরিক-ই ইনসাফ, পাকিস্তান) জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফাওয়াদ চৌধুরী এক সংবাদ সম্মেলনে ২৫ মে (বুধবার) থেকে শুরু হতে যাওয়া ‘আজাদি মার্চ’ বন্ধ করার জন্য শক্তি প্রয়োগের বিরুদ্ধে সরকারকে সতর্ক করার কয়েক ঘণ্টা পর এসব ঘটনা ঘটে।

সাবেক তথ্যমন্ত্রী সরকারে উদ্দেশে বলেন, তারা চাইলে পিটিআই নেতা-কর্মীদের গ্রেপ্তার করতে পারেন। তবে এর ফল ভালো হবে না।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরানের দলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, এ পর্যন্ত প্রায় ৭৩ কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। লাহোরের মডেল টাউনে পিটিআই নেতার বাড়িতে অভিযানের সময় পুলিশ কনস্টেবল কামাল আহমেদ বুকে গুলিবিদ্ধ হন। তাকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে তিনি মারা যান।

পুলিশ জানিয়েছে, একটি বাড়ির ছাদ থেকে গুলি চালানো হয়ে থাকতে পারে। লাহোর পুলিশের ডিআইজি (অপারেশন) ক্যাপ্টেন (অব.) মুহাম্মদ সোহেল চৌধুরী বলেন, ‘আমরা এখনও তদন্ত করছি। কিন্তু (অপরাধে) জড়িতদের আমরা রেহাই দেব না।’

লংমার্চের আগে পিটিআই-এর বিরুদ্ধে শক্তি প্রয়োগের বিষয়ে দলটির নেতা ফাওয়াদের সতর্কতা সত্ত্বেও পুলিশ পাঞ্জাব ও ইসলামাবাদ জুড়ে নেতাদের বাড়িতে অভিযান চালায়।

পাকিস্তানের গণমাধ্যমটি জানায়, পুলিশ লাহোরে হাম্মাদ আজহারের বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে। তবে এ সময় তিনি তার বাসভবনে ছিলেন না।

লাহোর পুলিশ পিটিআই-এর সাবেক তথ্য সচিব ফারুখ জাভেদের বাসভবনেও অভিযান চালিয়েছে। তবে এ সময় তিনি তার বাড়ির পিছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান।

লাহোরের জওহর টাউনে পিটিআই এমপিএ সাদিয়া সোহেল বলেন, তার বাড়িতেও অভিযান চালানো হয়েছে। তার দাবি, ‘পুলিশ বাড়ির চার দেয়ালের পবিত্রতা লঙ্ঘন করেছে।’

লাহোরে পিটিআই নেতা মেহর নাঈমুল্লাহ তাজের বাড়িতেও অভিযান চালানো হয়। তিনি অভিযোগ করেন যে, পুলিশ তার পরিবারের সদস্যদের সাথে দুর্ব্যবহার করেছে এবং তার কর্মীদের মারধর করেছে।

পুলিশ পিটিআই নেতা মালিক ইশতিয়াক এবং ইয়াসির গিলানির বাসভবনে অভিযান চালায়, কিন্তু তারাও তাদের বাড়িতে উপস্থিত না থাকায় কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

শিয়ালকোটে তথ্য বিষয়ক প্রধানমন্ত্রীর সাবেক বিশেষ সহকারী ফিরদৌস আশিক আওয়ানের বাড়িতে, সাবেক প্রাদেশিক মন্ত্রী চৌধুরী ইখলাক এবং পিটিআই নেতা তাহির হুন্ডলির বাড়িতে অভিযান চালানো হয়েছে।

সূত্র: বাংলাদেশ জার্নাল
এম ইউ/২৪ মে ২০২২

Back to top button