ক্রিকেট

শুরুর দিকে মিরপুরে থাকলে হার্ট অ্যাটাক করতাম: পাপন

ঢাকা, ২৩ মে – শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল ভয়ঙ্কর। দুই পেসারের তোপে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় তাদের ব্যাটিং লাইনআপ। মাত্র ২৪ রানে নেই পাঁচ উইকেট। মুশফিকুর রহিম-লিটন দাসের অতিমানবীয় ব্যাটিংয়ে শেষ পর্যন্ত বিপর্যয় কাটিয়ে হাসিমুখেই দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বললেন, শুরুর দিকে মিরপুরে দলের অবস্থা দেখলে হার্ট অ্যাটাক করতেন!

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সোমবার (২৩ মে) প্রথম দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন নাজমুল হাসান। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আইসিসি প্রেসিডেন্ট গ্রেগ বার্কলে।

নাজমুল বলেন, ‘৫ উইকেট পড়ার সময় আমি ছিলাম না। থাকলে হয়তো হার্ট অ্যাটাক করতাম। তখন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে ছিলাম। উনি বললেন কী অবস্থা খেলার, আমি বললাম ‘আপা আমি এখনও দেখিনি, গিয়ে দেখতে চাই।”

প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৭৭ রান। ২৪ রানে ৫ উইকেট পড়ার পর আর কোনো উইকেট হারায়নি বাংলাদেশ। খেলার হাল ধরেন মুশফিক ও লিটন। দুজনের অনবদ্য ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ দিন শেষে পায় স্বস্তি। মুশফিক ১১৫ ও লিটন ১৩৫ রানে অপরাজিত আছেন। দুজনের জুটি থেকে আসে ২৫৩ রান, যা বাংলাদেশের টেস্ট ইতিহাসে ষষ্ঠ উইকেটে সর্বোচ্চ জুটি।

লিটন-মুশফিক যখন হাল ধরেছিলেন, তখন মিরপুরে আসেন বিসিবি সভাপতি। তিনি স্টেডিয়ামে ঢোকার সময় টিভিতে স্কোর দেখেন। নাজমুল আসার পর আর কোনো উইকেট পড়েনি বাংলাদেশের। এরপর তিনি আইসিসি প্রেসিডেন্টকে নিয়ে সিলেটে যান। আইসিসি প্রেসিডেন্টকে নিয়ে সেখানে স্কুল ক্রিকেট পরিদর্শন করেন। এরপর ঢাকায় ফিরে মিরপুরে সংবাদ সম্মেলনে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন, সঙ্গে ছিলেন বার্কলে।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ২৩ মে

Back to top button