ক্রিকেট

ঢাকা টেস্টে টস জিতে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

ঢাকা, ২৩ মে – মিরপুরে শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের শেষ টেস্টে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক।

চট্টগ্রামে দুদলের প্রথম টেস্ট ড্র হওয়ায় সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে পরিণত হয়েছে ঢাকা টেস্ট। আর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটিতে টস জিতে আগে ব্যাটিং করাকেই সমীচীন মনে করেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের ব্যাটিং স্বর্গে ড্র হয়েছিল সিরিজের প্রথম টেস্ট। তবে ২০১৫ সালের পর মিরপুরের ‘হোম অব ক্রিকেটে’ কোনো টেস্ট ড্র হয়নি। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট টেবিলে এগিয়ে যেতে এই টেস্টে ফল বের করে আনার চেষ্টা থাকবে দুদলেরই।

মিরপুরের কন্ডিশন, উইকেট সবই জানা মুমিনুল হকদের। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ঘরের মাটিতে বাংলাদেশের পরবর্তী সিরিজ ভারতের বিপক্ষে। তার আগে এটিই টাইগারদের জন্য জয়ে ফেরার সেরা সুযোগ। জয়ের ভালো সম্ভাবনা দেখছেন টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুলও। দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট শুরু হবে আজ সকাল ১০টায়।

ইতোমধ্যে টস অনুষ্ঠিত হয়েছে। চট্টগ্রামে হারলেও মিরপুরে টসে জিতেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক।

ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

চট্টগ্রাম টেস্টের একাদশে দুটি পরিবর্তন নিয়ে ঢাকা টেস্টে নামছে বাংলাদেশ।

প্রথম টেস্টে পাওয়া চোটে ছিটকে গেছেন দুই বোলার— পেসার শরিফুল ইসলাম আর অফ স্পিনার নাঈম হাসান।

শরিফুলের জায়গা কপাল খুলেছে পেসার এবাদত হোসেন আর স্পিনার নাঈমের জায়গায় খেলবেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ২০১৯ সালের পর আবার টেস্ট জার্সিতে মূল একাদশে মোসাদ্দেক।

দুটি পরিবর্তন এসেছে শ্রীলংকা শিবিরেও। বাঁহাতি স্পিনার লাসিথ এম্বুলডেনিয়ার পরিবর্তে ঢাকা টেস্টের একাদশে সুযোগ পেয়েছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার প্রবীণ জয়াভিক্রমা। চট্টগ্রামে বল হাতে সুবিধা করতে পারেননি এম্বুলডেনিয়া, ৪৭ ওভার হাত ঘুরিয়ে নেন মোটে ১ উইকেট।

এ ছাড়া জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্টে মাথায় বলের আঘাত পেয়ে উঠে যাওয়া বিশ্ব ফার্নান্দোকে ঢাকা টেস্টের একাদশে রাখেনি সফরকারীরা। তার পরিবর্তে কনকাশন বদলি হয়ে মাঠে নামা কাসুন রাজিথাকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এই পেসার বদলি হিসেবে নেমেই নেন ৪ উইকেট।

এক নজরে দুদলের একাদশ—

বাংলাদেশ : তামিম ইকবাল খান, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক সৌরভ (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন কুমার দাস, তাইজুল ইসরাম, মোসাদ্দেক হোসেন, সৈয়দ খালেদ আহমেদ ও এবাদত হোসেন।

শ্রীলংকা : দিমুথ করুনারত্নে (অধিনায়ক), ওশাদা ফার্নান্দো, কুশল মেন্ডিস, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, দীনেশ চান্দিমাল, নিরোশান ডিকওয়েলা, রমেশ মেন্ডিস, প্রবীণ জয়াভিক্রমা, অসিথা ফার্নান্দো ও কাসুন রাজিথা।

সূত্র : যুগান্তর
এম এস, ২৩ মে

Back to top button