ইউরোপ

মারিউপোল থেকে সরিয়ে নেওয়া হলো অবরুদ্ধ ইউক্রেনীয় সেনা

কিয়েভ, ১৭ মে – মারিউপোলের আজভস্টাল স্টিল কারখানায় দুই মাসের বেশি সময় ধরে আটকে থাকা কয়েকশ যোদ্ধাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে ইউক্রেন। বন্দিবিনিময় চুক্তির আওতায় তাদের সরিয়ে নেওয়া হয়।

এর আগে দেওয়া এক বিবৃতিতে রাশিয়া জানিয়েছিল কারখানাটিতে আটকা পড়া আহত ইউক্রেন সেনাদের সরিয়ে নিতে একটি চুক্তি হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় ইউক্রেনের সহকারী প্রতিরক্ষা মন্ত্রী আনা মালিয়ার জানান, মারিউপোলের স্টিল কারখানায় অবরুদ্ধ ২৬৪ সেনাকে স্থানীয় সময় সোমবার সন্ধ্যার দিকে কয়েক ডজন বাসে করে সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু হয়। এ সময় আহত ৫৩ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাশিয়া সমর্থিত বিদ্রোহীদের দখলে থাকা শহর নোভোজভস্ককে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এছাড়া বাকি ২১১ জনকে বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত আরেকটি শহর ওলেনিভকায় মানবিক করিডোর ব্যবহার করে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরো জানান, রাশিয়ার বন্দি সেনাদের বিনিময়ে সেনাদের সরিয়ে আনা হয়েছে।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি স্থানীয় সময় মঙ্গলবার রাতে দেওয়া এক ভাষণে বলেন, অবরুদ্ধ সেনাদের সরিয়ে আনার এই প্রক্রিয়ায় ইউক্রেনের সামরিক, গোয়েন্দা এবং সমঝোতাকারীদের পাশাপাশি রেডক্রস এবং জাতিসংঘ অংশ নেয়।

তিনি আরো বলেন, ‌‘ইউক্রেন তার প্রকৃত হিরোদের জীবিত দেখতে চাই।’

জেলনস্কি এই সময় সতর্ক করে দিয়ে বলেন, ইউক্রেনীয় সেনাদের অবিলম্বে মুক্তি দেওয়া নাও হতে পারে। তাদের মুক্তির জন্য আলোচনা এবং সময়ের প্রয়োজন হবে।

মার্চের শুরুতে মারিউপোল শহরটি ঘিরে ফেলে রুশ সেনারা। সেখানে তীব্র যুদ্ধ শুরু হলে কয়েক শ ইউক্রেনীয় বাহিনীর আজভ রেজিমেন্টের সেনা, ন্যাশনাল গার্ড, পুলিশ এবং আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা ইউনিটের সদস্যরা আজভস্টাল স্টিল কারখানায় গিয়ে আশ্রয় নেন। সে সময় তাদের সঙ্গে অনেক বেসামরিক মানুষও কারখানায় গিয়ে আশ্রয় নেন।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ১৭ মে

Back to top button