ইউরোপ

ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধের দায়ে প্রথম বিচারের মুখোমুখি রুশ সেনা

কিয়েভ, ১৩ মে – একজন নিরস্ত্র ইউক্রেনীয় বেসামরিক নাগরিককে হত্যার অভিযোগে আজ শুক্রবার বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন একজন রাশিয়ান সেনা। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান শুরুর পর এটিই প্রথম কোনও যুদ্ধাপরাধের মামলা, যা ইউক্রেনের আদালতে উঠল।

উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় চুপাখিভকা গ্রামে একটি গাড়ির জানালা দিয়ে ৬২ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে মাথায় গুলি করার অভিযোগ রয়েছে রুশ সার্জেন্ট ভাদিম শিশিমারিনের বিরুদ্ধে।

যুদ্ধের আইন ও রীতিনীতি অনুযায়ী ইউক্রেনীয় ফৌজদারি কোডের ধারায় বর্ণিত দণ্ডের অধীনে তিনি যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের মুখোমুখি হয়েছেন।
তার অ্যাটর্নি ভিক্টর ওভস্যানিকভ বলেছেন, তার (ভাদিম শিশিমারিন) বিরুদ্ধে মামলাটি শক্তিশালী। তবে কী তথ্যপ্রমাণ তুলে ধরা হবে সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে কিয়েভের আদালত, খবর এপি নিউজের।

তিনি বলেন, তিনি এবং তার মক্কেল এখনও সিদ্ধান্ত নেননি যে কীভাবে তারা আবেদন করবেন।

ইউক্রেনের প্রসিকিউটর জেনারেল ইরিনা ভেনেডিক্টোভার অফিস জানিয়েছে, তারা রাশিয়ান সৈন্য এবং সরকারি কর্মকর্তাসহ ৬শ’ জনেরও বেশি সন্দেহভাজনের বিরুদ্ধে ১০ হাজার ৭শ’রও বেশি সম্ভাব্য যুদ্ধাপরাধের তদন্ত করছে।

সূত্র: বিডি-প্রতিদিন
এম ইউ/১৩ মে ২০২২

Back to top button