দক্ষিণ এশিয়া

শ্রীলঙ্কায় সংঘর্ষে নিহত ৩, রাজাপাকসেদের ঘনিষ্ঠ মন্ত্রী এমপি-নেতাদের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

কলম্বো, ০৯ মে – অর্থনৈতিক সংকটকে কেন্দ্র করে শ্রীলঙ্কায় চলমান আন্দোলনের মুখে পদত্যাগ করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে। চলমান আন্দোলন সহিংসতায় রূপ নেওয়ায় তিনি পদত্যাগ করেন বলে সরকারি সূত্র বলেছে।

সোমবার তিনি পদত্যাগ করেন। তার পদত্যাগের ঘণ্টাখানেক আগে ক্ষমতাসীন দলের সমর্থকরা লাঠিসোঁটা নিয়ে সরকারিবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর হামলা করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

দেশটির রাজধানী কলম্বোসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এই সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়ে। এতে ক্ষমতাসীন এক এমপিসহ তিন জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন দেড় শতাধিক। এ ছাড়া উত্তেজিত জনতা রাজাপাকসে পরিবারের ঘনিষ্ঠ সরকারে শিক্ষামন্ত্রী, কলম্বোর দুই মেয়র, এক এমপি ও সাবেক এক মন্ত্রীর বাসভবনে আক্রমণ এবং অগ্নিসংযোগ করেছে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়, কলম্বোর উপশহর মোরাতুওয়ার পৌর মেয়র সমন লাল ফার্নান্দোর বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে উত্তেজিত জনতা। এর আগে সমন লাল মাহিন্দা রাজাপাকসেদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে আটটি বাসে করে পৌর কর্মীদের নিয়ে যান। এর কয়েক ঘণ্টা পরই তার বাড়িতে আগুন দেওয়া হয়।

এ দিকে রাজাপাকসে পরিবারের একনিষ্ঠ সমর্থক সাবেক মন্ত্রী জনসন ফার্নান্দোর কুরুনেগালা শহরের মাউন্ট ল্যাভিনিয়াস্থ বাসভবন ও পার্টি অফিসেও আগুন দিয়েছে উত্তেজিত জনতা। এ সময় ডজনের চেয়ে বেশি গাড়িতেও আগুন দেওয়া হয়।

অন্যদিকে ক্ষমতাসীন দলের এমপি সনাথ নিশান্তের পুত্তলাম জেলার বাড়িতেও অগ্নিসংযোগ করেছে উত্তেজিত জনতা। তারা এমপির সম্পত্তি ধ্বংস এবং গাড়িতেও আগুন দিয়েছে।

এ ছাড়াও বিক্ষোভকারীরা কুরুনেগালার মেয়র থুশারা সঞ্জিওয়ার বাড়িতেও আক্রমণ করেছে বলে টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে।

এদিকে শেহান মাদাওয়া নামে এক শ্রীলঙ্কান সাংবাদিক টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যায় একটি বাড়িতে আগুন জ্বলছে। ক্যাপশনে তিনি লিখেন, ‘মন্ত্রী রমেশ পাথিরানার বাড়ি’। রমেশ পাথিরানা বর্তমান সরকারের শিক্ষামন্ত্রী।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/০৯ মে ২০২২

Back to top button