ইউরোপ

রাশিয়ার বিজয় দিবসে পশ্চিমাদেরকে ‘প্রলয়’ সংকেত পাঠাবেন পুতিন

মস্কো, ০৭ মে – রাশিয়ার বিজয়ের ৭৭তম বার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানের দিন পশ্চিমা বিশ্বের কাছে ‘প্রলয়সংকেত’ পাঠাবেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

এদিন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত ইউনিয়নের বিজয় উদযাপন উপলক্ষ্যে বার্ষিক কুচকাওয়াজের চূড়ান্ত মহড়া করেছে মস্কো। সোমবার রাশিয়ান রেড স্কয়ারে ট্যাংক, রকেট ও আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রে সুসজ্জিত সেনাবাহিনীর ১১ হাজার সেনার সামনে বক্তৃতা দেবেন পুতিন।

বিজয় দিবস উদযাপনের সময় সেন্ট ব্যাসিলস ক্যাথেড্রালের ওপর দিয়ে উড়ে যাবে সুপারসনিক ফাইটার জেট, টু-১৬০ স্ট্র্যাটেজিক বোমারু বিমান ও ইল-৮০ ‘ডুমসডে’ কমান্ড বিমান। পারমাণবিক যুদ্ধ হলে এই ডুমসডে বিমান রাশিয়ার আক্রমণের নেতৃত্ব দেবে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

ইল-৮০ বিমানটিকে তৈরি করা হয়েছে পুতিনের ভ্রাম্যমাণ কমান্ড সেন্টার হিসাবে। এটি নানা আধুনিক প্রযুক্তি দিয়ে সজ্জিত হলেও, ঠিক কী কী প্রযুক্তি এতে ব্যবহার করা হয়েছে- তা সঙ্গত কারণেই গোপন রেখেছে রাশিয়া। তবে এই ডুমসডে বিমানকেই পুতিনের ‘প্রলয়সংকেত’ বলে ধারণা করা হচ্ছে।

১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের পতনের পর শনিবারের এই কুচকাওয়াজ কার্যত একটি বার্ষিক অনুষ্ঠানে পরিণত হয়েছিল এবং সামরিক শক্তির প্রদর্শন হিসাবে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিগত দুই দশকের ক্ষমতায় থাকার গুরুত্ব জানান দিচ্ছিল।

এদিকে ৯ মে রাশিয়ার বিজয় দিবসকে কেন্দ্র করে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে ইউক্রেন। এর মধ্যেই নাগরিকদের রবি থেকে সোমবার নিরাপদে থাকার আহ্বান জানিয়েছেন কিয়েভের মেয়র ভিটালি ক্লিটসকো।

ওইদিন রাশিয়ার ঐতিহাসিক বিজয় দিবসে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক বিজয় ঘোষণা করতে পারেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

সূত্র: যুগান্তর
এম ইউ/০৭ মে ২০২২

Back to top button