ঢালিউড

‘শান’-এ মুগ্ধ দর্শক

ঢাকা, ০৭ মে – শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টা, রজধানীর মিরপুরে অবস্থিত সনি স্কয়ারে ঢুকতেই কাউন্টারের সামনে দেখা গেলো মানুষজনের ভিড়। সিনেপ্লেক্সটির ৩ নাম্বার হলে চলছে সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরি অভিনীত সিনেমা ‘শান’ এবং পাশের ১ ও ২ নাম্বার হলে চলছে হলিউড সিনেমা। ৭ টা বেজে ২৫ মিনিটে শুরু হবে ইভেনিং শো, ততক্ষণে হলের সামনে লম্বা ভিড় জমে গিয়েছে। এরমধ্যে অনেকেই কাউন্টারে এসে ফেরত গিয়েছেন কারণ পর্যাপ্ত টিকিট নেই অর্থাৎ অনলাইনে ইভেনিং শোয়ের টিকিট আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে।

৩ নাম্বার হলের সামনে প্রায় দেড় শতাধিক মানুষের ভিড়। একে একে হলের ভিতরে প্রবেশ করছেন টিকিট নিয়ে। পরক্ষণেই দর্শক সারি পরিপূর্ণ হয়ে উঠলো অর্থাৎ শো হাউজফুল। কিছুক্ষণ পরেই সিনেমা শুরু হলো। শুরুর দিকে পিনপতন নিরবতা থাকলেও সেই নিরবতা ভেঙে যায় মূহুর্তেই। হিরোর এন্ট্রি সিনেই হলরুম হয়ে উঠে শব্দমুখর। পাশ থেকে কানে আসে দর্শকের শিস এবং করতালির আওয়াজ। নায়ককে এক ঝলক দেখতেই দর্শকরা আনন্দে উদ্ভাসিত হতে শুরু করেন।

তরুণ-তরুণী, মধ্য বয়সী কিংবা বয়োজেষ্ঠ্য অনেককেই দেখা গিয়েছে হলে। কেউ বা বন্ধুর সঙ্গে এসেছেন, কেউবা পরিবারের সঙ্গে আবার কেউ বা তার মাকে নিয়ে এসেছেন। তবে সবার মুখেই নানারকম অভিব্যক্তি লক্ষ্য করা গিয়েছে। কখনও হেসেছেন আবার কখনও কেঁদেছেন নায়িকার মৃত্যুতে আবার কেউ বা সিটি বাজিয়েছেন নায়কের অ্যাকশনে।

পাশে বসা এক মা ও ছেলেকে দেখা গিয়েছে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলতে। নায়কের এন্ট্রিতে ছেলে করতালি দেন আর মা দেখেন গল্পের গভীরতা। মানব পাচার নিয়ে দেখানো নানান বিষয় নিয়ে মা নানা প্রশ্ন ছুড়ছেন ছেলের দিকে আর ছেলে মাকে বোঝাচ্ছেন সত্যতা।

শেষ দিকে এসে পুরো হল যেন করতালিতে মুখরিত হয়ে উঠলো। শেষ দৃশ্যে সিয়াম আহমেদকে নতুন মিশনের জন্য জয়েন করতে বলেন মিশা সওদাগর, আর তা দেখে অনেকের মনেই প্রশ্ন জেগেছে, নিশ্চয় ছবিটির পার্ট টু আসতে পারে। সিনেমা শেষে একে একে মুগ্ধতা আর একরাশ হাসি নিয়ে হল থেকে বের হতে দেখা গেলো। তরুণ তরুণীরা বের হতে হতে কথা বলছে সিয়ামকে নিয়ে, তার অভিনয়, লুক নিয়ে। কেউ বলছেন, অনেকদিন পর সিনেমা দেখে তৃপ্তি পেলাম। আবার কেউ বলছেন, বাংলা সিনেমা অনেকদূর এগিয়েছে।

সিনেমা দেখা শেষে সনি স্কয়ার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের আসন সংখ্যা ১৩৪টির মত। প্রতিদিন শান সিনেমার দুটি করে শো চলছে। ঈদের দিন থেকে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত প্রতিটি শো-ই হাউজফুল গিয়েছে। তাদের ভাষ্য, আমাদের এখানে শুধু প্রিমিয়াম সিট রয়েছে তাও ১৩৪টির মত। শান ছবিটি বেশ ভালো চলছে, দর্শক আসছে। ঈদের দিন থেকে প্রতিটা শো-ই হাউজফুল পেয়েছি আমরা।

এম এস, ০৭ মে

Back to top button