ফুটবল

সম্ভবত আমি সিটিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানোর যোগ্য নই’

তার অধীনে ম্যানচেস্টার সিটির সাফল্য ঈর্ষণীয়। তিনটি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জিতেছেন, এফএ কাপ একটি, লিগ কাপ জিতেছেন চারটি। কিন্তু চ্যাম্পিয়নস লিগে এখন পর্যন্ত দলকে শিরোপা এনে দিতে পারেননি পেপ গার্দিওলা।

২০১৬ সালে সিটির দায়িত্ব নেওয়ার পর গতবার ফাইনালেও উঠেছিলেন। কিন্তু চেলসির কাছে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় সিটির। এবারও সুযোগ ছিল শিরোপা খরা কাটানোর।

কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে গিয়ে অবিশ্বাস্য এক ম্যাচের সাক্ষী হয়ে বিদায় নিতে হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটিকে। যে হার কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না সমর্থকরা।

সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে বুধবার রাতে সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে ৮৯ মিনিট পর্যন্তও ১-০ গোলে এগিয়ে ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৩ গোলের অগ্রগামিতায় ফাইনাল বলতে গেলে হাতের মুঠোয় ছিল তাদের। সেখান থেকে অবিশ্বাস্যভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে রিয়াল ম্যাচটি জিতে নিয়েছে ৩-১ গোলে। ১২০ মিনিটের লড়াই শেষে ৬-৫ গোলের অগ্রগামিতায় ফাইনালে নাম লিখিয়েছে কার্লো আনচেলত্তির দল।

সবার মতো হতাশ গার্দিওলাও। সিটিকে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতানোর প্রসঙ্গে এবার তো কষ্ট নিয়ে বলেই ফেললেন, সম্ভবত তিনি যথেষ্ট যোগ্য নন।

সিটি কোচ বলেন, ‘আমি সম্ভবত দলকে এটা এনে দেওয়ার মতো যথেষ্ট যোগ্য নই। কিন্তু কেউ কি জানে, অন্য কোনো খেলোয়াড় বা কোচ থাকলে কী হতো? আমরা খুব কাছে ছিলাম। তারাও জানে, আমরাও জানি। তবে এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, আমাদের আগামী মৌসুমে চেষ্টা করতে হবে। আবারও চেষ্টা করতে হবে।’

তার দল কি চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতার মতো যথেষ্ট সামর্থ্যবান? এমন প্রশ্নে গার্দিওলার উত্তর, ‘আমি জানি না। আমি এই প্রশ্নের জবাব দিতে পারব না। মাদ্রিদে যাওয়ার আগেও আমি এটা জানতাম না। মাঝেমধ্যে আপনারা এমন প্রশ্ন করেন যে, আমার সেসবের উত্তর থাকে না। ফুটবল অবিশ্বাস্যভাবে আনপ্রেডিক্টেবল। আমরা দেখেছি এটা।’

গার্দিওলা জানান, হারের পর দুদিন পার হলেও শিষ্যদের সঙ্গে এটা নিয়ে কথা হয়নি তার। সিটি কোচ বলেন, ‘আমরা কথা বলিনি। আসলে আমরা যা অনুভব করছি, কথা বললে কোনো উপকার হবে না। সময়ের দরকার। যতটা সম্ভব ঘুমাতে হবে এবং পরবর্তী লক্ষ্য ঠিক করতে হবে।’

ম্যান সিটি বেশ চাপে আছে। রোববার তাদের ম্যাচ নিউক্যাসলের বিপক্ষে। প্রিমিয়ার লিগে লিভারপুলের বিপক্ষে তারা মাত্র এক পয়েন্টে এগিয়ে। চ্যাম্পিয়নস লিগে হারের ধাক্কা সামলে প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা ধরে রাখাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ হবে সিটিজেনদের।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এস, ০৭ মে

Back to top button