জাতীয়

শ্রীলঙ্কাকে জরুরি ওষুধ উপহার দিলো বাংলাদেশ

ঢাকা, ০৫ মে – শ্রীলঙ্কাকে সহায়তার অংশ হিসেবে ২০ কোটি টাকা মূল্যের জরুরি ওষুধ উপহার দিয়েছে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে শ্রীলঙ্কাকে এই জরুরি ওষুধ উপহার হিসেবে তুলে দেয়া হয়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন ও বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক ঢাকায় নিযুক্ত শ্রীলঙ্কার হাইকমিশনার প্রফেসর সুদর্শন সেনেভিরাত্নের হাতে এই উপহার তুলে দেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ভ্রাতৃপ্রতিম শ্রীলঙ্কার জনগণের জন্য এই সহায়তা (ওষুধ) দিতে পেরে আমি আনন্দিত। এ বছর দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি উদ্‌যাপনের পর্বে এই সহযোগিতা বন্ধুত্ব ও সহমর্মিতার প্রতীক।

তিনি বলেন, বন্ধু ও ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশী হিসেবে শ্রীলঙ্কার সংকটের সময় পাশে দাঁড়ানোটা আমাদের জন্য সম্মানের বিষয়।

তিনি আরও বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির পাশাপাশি রাশিয়া-ইউক্রেনের সংঘাত বৈশ্বিক সরবরাহব্যবস্থা বিঘ্নিত করার মধ্য দিয়ে অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। প্রতিটি দেশ নানা মাত্রায় চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা এর ব্যতিক্রম নয়। এই সংকটকালে অতীতের যেকোনো সময়ের তুলনায় পারস্পরিক সহযোগিতা অনেক বেশি জরুরি হয়ে পড়েছে।

এক প্রশ্নের উত্তরে আব্দুল মোমেন জানান, শ্রীলঙ্কাকে বাংলাদেশ ঔষধ শিল্প সমিতির পক্ষ থেকে ১০ কোটি টাকা ও বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে ১০ কোটি টাকা সমমূল্যের জরুরি ওষুধ সরবরাহ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ঋণে জর্জরিত শ্রীলঙ্কা অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আশঙ্কাজনকভাবে কমে গেছে। দেশটি রেকর্ড মূল্যস্ফীতির মুখোমুখি। লোডশেডিং, জ্বালানি–সংকট, খাদ্য ঘাটতিতে দেশটিতে গণ-অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়েছে।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এম এস, ০৫ মে

Back to top button