জাতীয়

টানা ১৩ দিন মৃত্যুশূন্য বাংলাদেশ, শনাক্ত ৭

ঢাকা, ০৩ মে – করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে আগের ১২ দিনের মতো গত ২৪ ঘণ্টাতেও কেউ মারা যায়নি। সে হিসাবে টানা ১৩ দিন করোনায় মৃত্যুশূন্য থাকল দেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় আগের দিনের তুলনায় নতুন সংক্রমণও কমেছে। তবে নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার কিছুটা বেড়েছে।
বিজ্ঞাপন

মঙ্গলবার (৩ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো কোভিড-১৯ বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। অধিদফতরের উপপরিচালক ও কোভিড ইউনিটের প্রধান ডা. মো. জাকির হোসেন খান বিজ্ঞপ্তিতে সই করেছেন।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ৮৭৯টি ল্যাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে আরটি-পিসিআর ল্যাব ১৬০টি, জিন এক্সপার্ট ল্যাব ৫৭টি, র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাব ৬৬২টি। মোট ল্যাবের মধ্যে সরকারি ৫৪৫টি ও বেসরকারি ১১৭টি।

এসব ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৬৭৪টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১ হাজার ৬৮৬টি। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯২ লাখ ৫৬ হাজার ৩১৫টি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪৭ লাখ ৪০ হাজার ৯৫৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সব মিলিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ১ কোটি ৩৯ লাখ ৯৭ হাজার ২৭২টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় যেসব নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে ৭টি নমুনায়। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ১০টি। নতুন শনাক্ত হওয়া ৭টিসহ এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগী শনাক্ত হলেন ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৭৩৩ জন।

নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার আগের দিন ছিল শূন্য দশমিক ৪০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় এই হার কিছুটা বেড়ে হয়েছে শূন্য দশমিক ৪২ শতাংশে। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে সংক্রমণ শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

আগের দিন করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়েছিলেন ৩০৪ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই সংখ্যা কিছুটা কমে হয়েছে ২৭৮ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত করোনামুক্ত হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৬ হাজার ২৭৯ জন। সংক্রমণ শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ১১ শতাংশ।

এর আগে, সবশেষ গত ২০ এপ্রিল করোনা সংক্রমণ নিয়ে এক জন মারা গিয়েছিলেন। এরপর টানা ১৩ দিনের মতো নতুন কেউ করোনা সংক্রমণ নিয়ে মারা না যাওয়ায় করোনায় মোট মৃত্যু আগের মতো ২৯ হাজার ১২৭ জনে স্থির রয়েছে। এর মধ্যে পুরুষ ১৮ হাজার ৫৯৪ জন, নারী ১০ হাজার ৫৩৩ জন।

সূত্র : সারাবাংলা
এম এস, ০৩ মে

Back to top button