ইউরোপ

মার্কিন অস্ত্রের চালানে হামলার দাবি রাশিয়ার

মস্কো, ০২ মে – ইউক্রেইনে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলোর পাঠানো অস্ত্রের চালানে তারা হামলা চালিয়েছে বলে দাবি করেছে রাশিয়া।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় রোববার বলেছে, ইউক্রেইনের ওদেসা শহরের কাছে চালানো এ হামলায় একটি সামরিক বিমানক্ষেত্রের রানওয়েও ধ্বংস হয়েছে।

ওদেসার প্রধান বিমানবন্দরে নতুন করে তৈরি করা একটি রানওয়ে রাশিয়ার হামলায় অকেজো হয়ে গেছে, ইউক্রেইন এমন অভিযোগ করার পর রাশিয়া এসব দাবি জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ওই বিমানক্ষেত্রে হামলা চালাতে তারা লক্ষ্যস্থলে নিখুঁতভাবে আঘাত হানতে সক্ষম অনিক্স ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে।

কিন্তু ওদেসা অঞ্চলের গভর্নর মাক্সিম মার্চেঙ্কো দাবি করেছেন, রাশিয়া ব্যাসন ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে আর সেগুলো ক্রাইমিয়া থেকে ছোড়া হয়েছে।

তবে এসব দাবি রয়টার্স স্বতন্ত্রভাবে যাচাই করতে পারেনি বলে জানিয়েছে।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, তাদের বিমান প্রতিরক্ষা সিস্টেমগুলো রাতে খারকিভ অঞ্চলে ইউক্রেইনের দুটি এসইউ-২৪এম বোমারু বিমান গুলি করে নামিয়েছে।

নয় সপ্তাহ ধরে চলা যুদ্ধে ইউক্রেইনের বহু শহর ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে, কয়েক হাজার লোক নিহত ও ৫০ লাখেরও বেশি মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

রাশিয়ার বাহিনীগুলো ইউক্রেইনের রাজধানী কিইভ দখলে ব্যর্থ হওয়ার পর এখন দেশটির পূর্ব ও দক্ষিণাঞ্চলের দিকে মনোযোগ দিয়েছে।

ইউক্রেইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর খেরসন পুরোপুরি ও পূর্বাঞ্চলীয় বন্দরনগরী মারিউপোলের অধিকাংশই দখল করে নিয়েছে মস্কোর বাহিনীগুলো। তবে তারা মারিউপোলের বিশাল একটি ইস্পাত শিল্প কারখানার নিয়ন্ত্রণ এখনও নিতে পারেনি, সেখানে ইউক্রেইনের কয়েক হাজার সামরিক, বেসামরিক ও আহত সেনা আটকা পড়ে ছিল; গত দুই দিনে জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় সেখান থেকে কিছু বেসামরিককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

সূত্র : বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর
এম এস, ০২ মে

Back to top button