জাতীয়

ঈদগাহে শুধু জায়নামাজ, ছাতা আনা যাবে : ডিএমপি

ঢাকা, ০১ মে – ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার (ডিএমপি) মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেছেন, ঈদের জামাতে ছাতা ও জায়নামাজ ছাড়া অন্যকিছু আনা যাবে না। পাশাপাশি যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা রোধে জাতীয় ঈদগাহে চার স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

রোববার (১ মে) জাতীয় ঈদগাহ নিরাপত্তা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ঈদুল ফিতরের নামাজ পড়তে জাতীয় ঈদগাহে জায়নামাজ ও ছাতা সঙ্গে নিয়ে আসতে পারবেন। এর বাইরে কিছু নিয়ে আসা যাবে না। এছাড়াও প্রত্যেককে তল্লাশির মধ্য দিয়ে গেট দিয়ে প্রবেশ করতে হবে। কারো সঙ্গে ব্যাগ থাকলে তা তল্লাশি করা হবে।

শফিকুল ইসলাম বলেন, এবারের ঈদে ঢাকায় ছোট-বড় এবং মসজিদ মিলে ১৪৬৮টি স্থানে ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে। সবকটিতেই নিরাপত্তা দেবে ডিএমপি পুলিশ। এছাড়াও জাতীয় ঈদগাহে জামাতের আগে সুইপিং করবে বোম ডিসপোজাল ইউনিট। চারপাশে ক্লোস সার্কিট ক্যামেরা বা সিসিটিভি ফুটেজ দিয়ে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করা হবে। তল্লাশি করতে সময় লাগার কারণে ঈদগাহের জামায়াতে মুসল্লিদের নির্ধারিত সময়ের আগে আসার অনুরোধ করা হচ্ছে। আর বৈরী আবহাওয়ার কারণে ঈদের প্রধান জামাত বায়তুল মোকাররমে অনুষ্ঠিত হলে সেখানেও একই ধরনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, ঈদে কোনো ধরনের জঙ্গি হামলা বা নাশকতার হুমকি নেই। তারপরও মুসল্লিদের ঈদের জামাতের নামাজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই আমরা এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। পাশাপাশি পারিপার্শ্বিক অবস্থা আমাদের মাথায় আছে।

এর আগে তিনি জাতীয় ঈদগাহ মাঠের পুরো এলাকা ঘুরে দেখার পাশাপাশি ডগ স্কয়ার দিয়ে তল্লাশি করা হয় এ সময় বিএনপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এম এস, ০১ মে

Back to top button