দক্ষিণ এশিয়া

মসজিদে নববীর ঘটনা শাহবাজদের কর্মফল: ইমরান খান

ইসলামাবাদ, ৩০ এপ্রিল – মসজিদে নববীতে পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ ও তার সঙ্গীদের ঘিরে ‘চোর চোর’ স্লোগান ও তুমুল হট্টগোলের বিষয়ে অবশেষে মুখ খুলেছেন ইমরান খান। এ ঘটনাকে ‘গণমানুষের ক্ষোভ’ উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, এটি বর্তমান সরকারেরই ‘কর্মফল’।

প্রধানমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরবে গেছেন মুসলিম লীগ নেতা শাহবাজ শরিফ। সঙ্গে রয়েছেন একঝাঁক মন্ত্রী, দলীয় নেতা ও পরিবারের সদস্য। তিনদিনের সফরে গত বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে সৌদিতে পা রাখেন তারা। পরে নামাজ পড়তে যান মসজিদে নববীতে। কিন্তু সেখানে অনভিপ্রেত ঘটনার সাক্ষী হতে হয়েছে শাহবাজদের। পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী-মন্ত্রীদের দেখেই তুলকালাম শুরু করেন একদল পাকিস্তানি হজ পালনকারী।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যায়, মহানবী (স)-এর মসজিদে শাহবাজ ও তার সঙ্গীদের দেখে ‘চোর চোর’ স্লোগান শুরু করেন একদল পাকিস্তানি। আরেক ভিডিওতে মসজিদের ভেতর পাকিস্তানের নতুন তথ্যমন্ত্রী মরিয়ম আওরঙ্গজেব এবং মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ মন্ত্রী শাহজাইন বুগতির উদ্দেশে কিছু লোককে গালিগালাজ করতে দেখা যায়। অন্য একটি ভিডিওতে এক হজপালনকারীকে বুগতির চুল পেছন থেকে টেনে ধরতে দেখা যায়।

মসজিদে নববীর মতো পবিত্র একটি জায়গায় এমন ন্যক্কারজনক ঘটনার তীব্র সমালোচনা করেছেন পাকিস্তানের বিভিন্ন রাজনীতিবিদ ও ধর্মীয় নেতা। ক্ষমতাসীনদের অভিযোগ, এর জন্য ইমরান খানের দল পিটিআই দায়ী।

এ ঘটনার প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান বলেছেন, পাকিম্তানের ইতিহাসে আগে কখনো জনগণের এমন প্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। তিনি বলেন, আমরা জনগণকে বেরিয়ে আসতে বলছি না, জনগণ নিজেই প্রতিবাদ করতে আসছে। কারণ তারা কষ্ট ও ক্ষোভের মধ্যে রয়েছে। আমি চ্যালেঞ্জ করতে পারি, তারা [শাসকরা] কোনো আর প্রকাশ্যে মুখ দেখাতে পারবে না।

এদিন ইমরান খান আবারও অভিযোগ করেন, বিদেশি ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তার সরকারের পতন ঘটানো হয়েছে এবং বর্তমান সরকার এর অংশ ছিল। তিনি বলেন, পাকিস্তানের ওপর একদল বদমাশ চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাই মসজিদে নববীতে যা ঘটেছে, তা ছিল তাদের কাজের ফল।

পিটিআই চেয়ারম্যানের দাবি, মসজিদে নববীর ঘটনার সময় বিশ্বজুড়ে তার দলের কর্মীরা শবে কদরের প্রার্থনায় ব্যস্ত ছিলেন। ইমরান বলেন, মসজিদে নববীতে মানুষকে গুণ্ডামিতে প্ররোচিত করার কথা আমি যেমন ভাবতে পারি না, মহানবি (স)-এর সত্যিকারের কোনো প্রেমিকও এটি করার কথা ভাববে না।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, হজরত মুহাম্মদ (স)-এর জন্য আমার হৃদয়ে যে স্থান রয়েছে, তা আর প্রমাণের দরকার নেই। আমি ইসলামবিদ্বেষের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে আওয়াজ তুলেছি। আমি বিশ্বাস করি, মহানবি (স)-কে ভালো না বাসা পর্যন্ত ঈমান পূর্ণ হবে না।

পাঁচ পাকিস্তানি গ্রেফতার
মসজিদে নববীতে বিশৃঙ্খলার দায়ে অন্তত পাঁচ পাকিস্তানি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে সৌদি আরব। দেশটির রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সৌদি গ্যাজেট এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এর আগে ইসলামাবাদে সৌদি দূতাবাসের তথ্য বিষয়ক পরিচালকও জানান, বৃহস্পতিবারের ঘটনায় মসজিদে নববীর পবিত্রতা লঙ্ঘনের অভিযোগে কয়েকজন পাকিস্তানি নাগরিককে গ্রেফতার করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/৩০ এপ্রিল ২০২২

Back to top button