মধ্যপ্রাচ্য

ঈদ উদযাপনে সাংবাদিকসহ ৩ হাজারের বেশি বন্দিকে ক্ষমা করলেন আল-সিসি

কায়রো, ২৮ এপ্রিল – মিশরে এক সাংবাদিকসহ তিন হাজারের বেশি বন্দিকে ক্ষমা করে দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি।

বুধবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ও কর্মকর্তারা এ তথ্য জানান। খবর মিডলইস্ট আইয়ের।

খবরে বলা হয়, ‘মিথ্যা সংবাদ ছড়ানোর’ দায়ে ওই সংবাদিককে জেলে দেওয়া হয়েছিল। তার নাম হুস্সাম মুনিস। তিনি বামপন্থি সংগঠক ও সংবাদিক। যাকে গত নভেম্বরে চার বছরের জেল দেওয়া হয়েছিল।

আইনজীবী ও সম্প্রতি গঠিত রাষ্ট্রপতির ক্ষমা কমিটির সদস্য তারেক আল-আওয়াদি টুইটারে লেখেন, ‘অভিনন্দন, হুস্সাম মুনিস ক্ষমা পেয়েছেন।’

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত তিন হাজার ২৭৩ জনকে প্রেসিডেন্ট ক্ষমা করে দিয়েছেন।

নির্বাচনে অংশ নিতে প্রস্তুতি নেওয়ার সময় বেশ কয়েকজন বিরোধী নেতার সঙ্গে মুনিসকে ২০১৯ সালে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। এর একটি আদালত মুনিস ও আরও পাঁচজনকে সাজা দেন। এর মধ্যে ছিলেন— সাবেক সংসদ সদস্য জিয়াদ আল-ইলাইমি। যিনি ২০১১ সালে মিশরে হওয়া বিপ্লবের পরিচিত মুখ।

রমজানের শেষ দিকে ঈদ উদযাপনে রাষ্ট্রপতির সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার রীতি দেশটিতে নতুন নয়।

দেশটিতে অধিকারকর্মীরা হাজার হাজার রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির দাবি জানিয়ে আসছে বহুদিন ধরে। যাদের আল-সিসি ২০১৩ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে বন্দি করে রেখেছেন।

অ্যারাবিক নেটওয়ার্ক ফর হিউম্যান রাইটস ইনফরমেশনের তথ্যমতে, ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত মিশরে বন্দির সংখ্যা ছিল এক লাখ ২০ হাজার। এর মধ্যে প্রায় ৬৫ হাজারের মতো রাজনৈতিক বন্দি। যার মধ্যে ২৬ হাজার জনকে বিচারবহির্ভূতভাবে বন্দি করে রাখা হয়েছে।

সূত্র: সমকাল
এম ইউ/২৮ এপ্রিল ২০২২

Back to top button