দক্ষিণ এশিয়া

তীব্র তাপপ্রবাহে বিপর্যস্ত ভারত, ৫ রাজ্যে সতর্কতা

নয়াদিল্লি, ২৮ এপ্রিল – তীব্র তাপপ্রবাহে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে ভারতের অন্তত পাঁচ রাজ্যের জনজীবন। এ কারণে রাজ্যগুলোতে বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ। দেশটির কিছু অংশে তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পার হয়েছে। খবর এনডিটিভির।

ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ (আইএমডি) জানিয়েছে, দেশটির বিশাল অংশে এমন উত্তপ্ত অবস্থা আরও অন্তত পাঁচদিন থাকবে। তবে আগামী তিন দিনের মধ্যে উত্তর-পশ্চিম ভারতের বেশিরভাগ অংশে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়বে এবং তারপরে দুই ডিগ্রি কমতে পারে।

তাপপ্রবাহে কারণে ভারতের রাজস্থান, দিল্লি, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ ও ওড়িশায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এসব রাজ্যের কিছু অংশে তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপর রেকর্ড করা হয়েছে।

আইএমডির বিজ্ঞানী আর কে জেনামানি বার্তা সংস্থা এএনআই’কে বলেছেন, আবহাওয়ার ভয়াবহ এই পরিস্থিতি আগামী মে মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অব্যাহত থাকার আশঙ্কা রয়েছে। এরপরে বৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়বে।

তীব্র গরমের কারণে বিদ্যুতের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় লোডশেডিং দেখা দিয়েছে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে। মহারাষ্ট্রের বিদ্যুৎমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্যটিতে ২০ লাখ মেট্রিক টন কয়লার ঘাটতি রয়েছে এবং আগামী দুই দিনের মধ্যে প্রধান তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোতে কয়লার মজুত ফুরিয়ে যাবে।

একই কারণে কল-কারখানায় চার ঘণ্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজস্থান। এর আগে গরমের মধ্যে বাড়তি চাহিদার কারণে শিল্প খাতে বিদ্যুৎ সরবরাহ সীমিত করার ঘোষণা দিয়েছে গুজরাট ও অন্ধ্র প্রদেশ।

চরম আবহাওয়ার কারণে ওড়িশার সব স্কুল আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রতিবেশী পশ্চিমবঙ্গ আগাম গ্রীষ্মকালীন ছুটি দিয়েছে। সেখানে আগামী ২ মে পর্যন্ত সব স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকবে।

চলতি বছর উত্তর-পশ্চিম ভারতে ১২২ বছরের মধ্যে সবচেয়ে উষ্ণতম মার্চ মাস রেকর্ড করা হয়েছে। ২০০৪ সালে এ মাসের গড় তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল সর্বোচ্চ ৩০ দশমিক ৬৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ বছরের গরম সেই রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২৮ এপ্রিল ২০২২

Back to top button