জাতীয়

বাঁশিতে ফুঁ দিয়ে ৪৬ রেলইঞ্জিন উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

ঢাকা, ২৭ এপ্রিল – পতাকা তুলে ও বাঁশি বাজিয়ে নতুন ৩০টি মিটারগেজ ও ১৬টি ব্রডগেজ লোকোমোটিভের (ইঞ্জিন) উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শেখ মুজিব ভ্রাম্যমাণ রেল জাদুঘর এবং উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় সংগ্রহ করা এসব রেলইঞ্জিন উদ্বোধন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আর কদিন পরেই ঈদ। ঈদে আমাদের লোকজনের চলাচল আরও বাড়বে। সেই ক্ষেত্রে আমি মনে করি আজকে যে নতুন লোকোমোটিভ চালু হচ্ছে, তাতে আমাদের দেশের মানুষ আরও ভালোভাবে ঈদের উৎসবে যোগ দিতে পারবে। নিজের আপন ঘরে ফিরতে পারবে। সেই সুবিধাটা হবে।

১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে হত্যার পরের ঘটনাপ্রবাহ মনে করিয়ে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ইতিহাস থেকেই জাতির পিতার নামটা সম্পূর্ণ মুছে ফেলা হয়েছিল। ৭ মার্চের ভাষণ নিষিদ্ধ ছিল, বাজানো যেত না। তার ছবিটাও দেখানো যেত না। এমনই একটা পরিবেশ ছিল। কিন্তু ইতিহাস আপন গতিতে ফিরে আসে। ইতিহাসকে কেউ মুছে ফেলতে পারে না। সেটি আজ প্রমাণিত সত্য।

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে শুধু বাংলাদেশে না, সমগ্র বিশ্বব্যাপী জাতির পিতার অবদান এবং সেই সঙ্গে ৭ মার্চের ভাষণ বিশ্ব প্রামাণ্য দলিলে স্থান পেয়েছে।

রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন, রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী, রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হুমায়ুন কবীরসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : যুগান্তর
এম এস, ২৭ এপ্রিল

Back to top button