দক্ষিণ এশিয়া

ঈদের পর অভিশংসিত হচ্ছেন পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট

ইসলামাবাদ, ২৭ এপ্রিল – ‘সংবিধান লঙ্ঘনের’ অভিযোগে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভিকে অভিশংসন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকার।

শরিক দলগুলোর সমর্থন নিয়ে ঈদের পর পরই জাতীয় পরিষদের স্পিকারের সামনে বিষয়টি উত্থাপন করা হবে বলে ক্ষমতাসীন দলের একজন সংসদ সদস্য জানিয়েছেন।

পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) থেকে নির্বাচিত জাতীয় পরিষদের সদস্য (এমএনএ) মহসিন শাহনেওয়াজ এক্সপ্রেস ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সরকার অন্ততপক্ষে দুটি ঘটনায় সংবিধান লঙ্ঘনের নোটিশ পেশ করে রাষ্ট্রপতিকে অভিশংসনের প্রক্রিয়া এগিয়ে নেবে।

ব্যারিস্টার মহসিন শাহনেওয়াজ বলেন, সরকার দুবার ‘অসাংবিধানিক’ সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আরিফ আলভিকে জবাবদিহি করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। দশম জাতীয় অর্থ কমিশন (এনএফসি) গঠনে বিজ্ঞপ্তি জারি এবং সংসদীয় কমিটিকে পাস কাটিয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসিপি) দুই সদস্যকে নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি সামনে আনা হবে।

পিএমএলের-এন আইনপ্রণেতা বলেন, দেশের উচ্চ আদালত রাষ্ট্রপতির সিদ্ধান্তগুলোকে সংবিধান লঙ্ঘন বলে ঘোষণা করেছে, রায়গুলোর বিরুদ্ধে আর কোনো আপিল করা হয়নি বলে এগুলো চূড়ান্ত হয়েছে বলে আমরা মনে করি।

অনাস্থা প্রস্তাবের মাধ্যমে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) চেয়ারম্যান ইমরান খানকে ক্ষমতাচ্যুত করার পর গত ১১ এপ্রিল শাহবাজ শরিফ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ পড়াতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

তখন থেকেই নতুন সরকারের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের বিরোধ চলছে। সবশেষে পাঞ্জাব প্রদেশের নতুন গভর্নর হামজা শাহবাজের শপথের বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়িয়েছে।

সূত্র : যুগান্তর
এম এস, ২৭ এপ্রিল

Back to top button