জাতীয়

‘বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মিরাকল’ অনুসরণ করতে পারে শ্রীলংকা, পাকিস্তান

ঢাকা, ২৬ এপ্রিল – বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনাকে মডেল হিসেবে গ্রহণ করতে পারে শ্রীলংকা ও পাকিস্তান। এমন পর্যবেক্ষণ উঠে এসেছে শ্রীলংকার সংবাদমাধ্যম ডেইলী নিউজের এক নিবন্ধে। এতে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার ভূয়সী প্রশংসা করা হয়। সমালোচনা করা হয়েছে সংকটে ডুবতে থাকা শ্রীলংকা ও পাকিস্তানের অর্থনৈতিক নীতি-কৌশলের।

শক্তিশালী রিজার্ভ, গতিশীল বৈদেশিক বাণিজ্য। রেমিট্যান্স প্রবাহেও উর্ধ্বমুখী প্রবণতা। সমানতালে এগিয়ে চলছে বড় বড় অবকাঠামো নির্মাণের কর্মযজ্ঞ। বাংলাদেশের এই অগ্রযাত্রা দৃষ্টি কেড়েছে গোটা বিশ্বের। দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর জন্য হয়ে উঠেছে শিক্ষণীয়।

চরম অর্থনৈতিক সংকটে ডুবন্ত শ্রীলংকার জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম ডেইলী নিউজে এমন পর্যবেক্ষণই উঠে এলো। এক নিবন্ধে শ্রীলংকা ও পাকিস্তানকে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক ব্যবস্থপনা এবং উন্নয়ন কৌশল অনুসরনের পরামর্শ দেয়া হয়।

বিষয়টিকে মোটেও অস্বাভাবিক বলছেন না দেশের অর্থনীতিবিদরা। তাদের মতে, বৈদেশিক ঋণ, রিজার্ভ, খাদ্য উৎপাদন, রেমিট্যান্স ও রপ্তানি-বাণিজ্যে শ্রীলঙ্কা আর পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশের তুলনা করার কোনো সুযোগ নেই।

শ্রীলংকা ডুবছে অপরিকল্পিত বিদেশি ঋণ, পর্যটনে ধ্বস, আর উচ্চাভিলাষী কৃষিনীতি গ্রহণের কারণে। বাংলাদেশ এক্ষেত্রে সম্পূর্ণ বিপরীত। দেশের জিডিপির মাত্র ১৫ শতাংশ বিদেশি ঋণ। যেখানে শ্রীলংকার ৪২ শতাংশ, পাকিস্তানের ২৬ শতাংশ।

প্রবৃদ্ধি অর্জনেও বাংলাদেশের ধারে কাছে নেই শ্রীলংকা। চলতি অর্থবছরে ৭ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধির আশা করছে বাংলাদেশ। এ সময়ে শ্রীলংকার প্রবৃদ্ধি ৩ শতাংশের নিচে নামার পূর্বাভাস দাতা সংস্থাগুলোর।

সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনায় বাংলাদেশের রাষ্ট্র পরিচালনার নীতি ও কৌশল পাকিস্তান ও শ্রীলংকার পাথেয় হবার দাবি রাখে বলেও পরামর্শ এসেছে ডেইলি নিউজের নিবন্ধে।

সূত্র: একুশে টিভি
এম ইউ/২৬ এপ্রিল ২০২২

Back to top button